নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক নার্সিং দিবস

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ১২ মে ২০১৯

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মধ্যে দিয়ে রোববার আন্তর্জাতিক নার্সিং দিবস পালিত হচ্ছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য- ‘নার্সেস বলিষ্ট কণ্ঠস্বর- স্বাস্থ্য মানবিক অধিকার।’

দিবসটি উপলক্ষে সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ চত্বর থেকে ঢাকা নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, কলেজের সামনে তারা রোগীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে। স্বাস্থ্যসেবাসমূহের মধ্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা, ওজন ও প্রেসার মাপা এবং স্বাস্থ্য পরামর্শ প্রদান করছেন।

Nurse

এছাড়া রাজধানীর মুগদায় জাতীয় নার্সিং উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান থেকে সকালে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয় ও পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর আড়াইটায় স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদ (স্বানাপ) এর উদ্যোগে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

সেবা অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী রোগীর বিছানা, চিকিৎসক এবং নার্সের অনুপাত হতে হবে ১:৩। অর্থাৎ একজন চিকিৎসকের সঙ্গে তিনজন নার্স থাকতে হবে। সেই হিসাবে দেশে প্রায় তিন লাখ নার্স প্রয়োজন। কিন্তু দেশে বর্তমানে সরকারিভাবে কর্মরত নার্সের সংখ্যা মাত্র ৩৪ হাজার। সারা দেশে নিবন্ধিত নার্স আছেন ৪৮ হাজার। যা চাহিদার তুলনায় অতি নগণ্য। এতে করে রোগীরা প্রয়োজনীয় সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা।

southeast

নার্সিং সেবার অধিকতর মান উন্নয়নে কি করা উচিত এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদের (স্বানাপ) সদস্য সচিব ইকবাল হোসেন সবুজ জাগো নিউজকে বলেন, নার্সিং পেশার মান সমুন্নত রাখার স্বার্থে অবিলম্বে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতর ও নার্সিং কাউন্সিলসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের অপসারণ করতে হবে এবং সেখানে সৎ ও যোগ্য লোক নিয়োগ দিতে হবে।

প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতির কারণে নার্সিং পেশা ক্রমাগত দুর্বল হয়ে পড়ছে। এতে করে নার্স এবং রোগী উভয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। এ অবস্থা চলতে থাকলে নার্সিং পেশায় অচলাবস্থা সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

 

উল্লেখ্য, আধুনিক নার্সিংয়ের প্রতিষ্ঠাতা ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলের জন্মদিবসে বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালন করা হয়। ১৮২০ সালের ১২ মে ইতালির ফ্লোরেন্স শহরে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ছোট বেলা থেকেই মানবসেবায় বিশেষভাবে উৎসাহী ছিলেন।

এমইউ/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :