বিএসএমএমইউ’র দাবি

ভিসির বিরুদ্ধে করা দুর্নীতির অভিযোগ অসত্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৬ পিএম, ০১ জুন ২০২৩

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদকে নিয়ে যে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ হয়েছে তা সঠিক নয় বলে দাবি করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)।

বিএসএমএমইউ বলছে, ‘উপাচার্যের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্য-দুর্নীতির অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এই সংবাদ সঠিক নয়। এটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

আরও পড়ুন: বিএসএমএমইউ উপাচার্যের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্য-দুর্নীতির অভিযোগ

প্রতিষ্ঠানটি আরও বলছে, জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকারকে অস্থিতিশীল করতে উপাচার্যের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার চেষ্টা করছে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি। প্রকাশিত সংবাদটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উজ্জ্বল ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা ও গতিশীল, সর্বাধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা ব্যাহত করার উদ্দেশ্যে প্রকাশ করা হয়েছে।

নিয়োগের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ বলছে, নিয়োগ ও ভর্তিসহ সব পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী যথাযথ নিয়ম মেনে হয়। এক্ষেত্রে দুর্নীতি ও অনিয়মের কোনো সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন কমিটির মাধ্যমে এই কার্যাবলী সম্পন্ন হওয়ার পর তা সিন্ডিকেটে অনুমোদন করা হয়। কোনো ব্যক্তি চাইলেই এই নিয়মের ব্যত্যয় করে তার কোনো আত্মীয়কে নিতে পারেন না।

আরও পড়ুন: নানা ভোগান্তি তবুও রোগীদের ভরসা বিএসএমএমইউ আউটডোর

উপাচার্যের পিএসকে নিয়ে যে নিয়োগ বাণিজ্যের কথা বলা হয়েছে, তা মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেছে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ।

এএএম/জেডএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।