স্ত্রীর লাশ কাঁধে ১০ কিলোমিটার হাঁটলেন দানা মাঝি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৬ এএম, ২৫ আগস্ট ২০১৬

স্ত্রীর মরদেহ কাঁধে নিয়ে ১০ কিলোমিটার হেঁটে বাড়ি নিয়েছেন ভারতের দারিদ্র্যপীড়িত প্রদেশ উড়িষ্যার এক ব্যক্তি; এ সময় তার ১২ বছর বয়সী কন্যা কান্না করতে করতে তার পেছনে হাঁটে। বাড়ি থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন স্ত্রীকে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ার পর কোনো যানবাহন না পেয়ে স্ত্রীর মরদেহ কাঁধে নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দানা মাঝির স্ত্রী অমং দেই (৪২) যক্ষ্মায় আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার রাতে উড়িষ্যার কালাহান্ডি হাসপাতালে মারা যান। মাঝি বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলেছিলাম যে, আমি গরিব মানুষ এবং গাড়ি ভাড়া করার সামর্থ্য নেই। অনুরোধ করেছিলাম কিন্তু তারা কোনো সহায়তা করেনি।

স্ত্রীর মরদেহ কাপড়ে মোড়ানোর পর কাঁধে করে মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে গ্রামের উদ্দেশ্যে হেঁটে রওনা দেন তিনি।

এনডিটিভি বলছে, উড়িষ্যা এমন একটি রাজ্য যেখানে চিকিৎসাসেবা পাওয়া অত্যন্ত দুষ্কর। রাজ্য সরকার গত ফেব্রুয়ারিতে সরকারি হাসপাতাল থেকে মরদেহ বাড়ি পৌঁছে দিতে মহাপ্রয়াণ নামে বিনামূল্যের একটি প্রকল্প চালু করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের ৩৭টি সরকারি হাসপাতালে মরদেহ বহনের জন্য গাড়ি সরবরাহ করা হয়েছে। তবে মাঝি স্ত্রীর মরদেহ বাড়ি নেয়ার জন্য কোনো গাড়ি পাননি।



স্থানীয় একটি টেলিভিশনের এক কর্মী মাঝিকে স্ত্রীর মরদেহ বহন করে নিয়ে যেতে দেখে ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাকে জানান। পরে ওই কর্মকর্তা অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করেন। কিন্তু তার আগেই স্ত্রীর মরদেহ কাঁধে নিয়ে মাঝি হেঁটেছেন ১০ কিলোমিটার।

রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজু জনতা দলের সংসদ সদস্য কালিকেম সিংহ দেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে দেয়া এক পোস্টে বলেন, এ ঘটনার সত্যতা যাচাই ও যথাযথ পদক্ষেপ নিতে স্থানীয় এক মন্ত্রীকে আহ্বান জানিয়েছি।

এসআইএস/আরআইপি