বাংলাদেশ সীমান্তে লেজার রশ্মির প্রাচীর দিচ্ছে ভারত


প্রকাশিত: ১২:৪০ পিএম, ০৮ জুলাই ২০১৭
বাংলাদেশ সীমান্তে লেজার রশ্মির প্রাচীর দিচ্ছে ভারত

বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতীয় সীমান্ত সুরক্ষার জন্য লেজার রশ্মির প্রাচীর চালু করছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ। একই সঙ্গে সীমান্তে সুরঙ্গ শনাক্তের জন্য প্রযুক্তিগত সমাধান খুঁজছে ভারতীয় এই সীমান্তরক্ষী বাহিনী।

ভারতীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইআইটি বোম্বের সঙ্গে শিগগিরই এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর করছে বিএসএফ। ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সীমান্তে লেজার রশ্মির প্রাচীর নির্মাণের বিষয়ে শনিবার আইআইটি বোম্বের সঙ্গে বিএসএফ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করবে।

এতে বলা হয়েছে, দেশের বৃহত্তম সীমান্তরক্ষী বাহিনী পশ্চিমে ভারত-পাক সীমান্ত ও পূর্বে ভারত-বাংলা সীমান্ত কার্যকরভাবে বন্ধ করতে সমন্বিত সীমান্ত ব্যবস্থাপনা ব্যবস্থা (সিআইবিএমএস) বাস্তবায়ন করছে। সন্ত্রাসীদের অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং বিভিন্ন ধরনের চোরাচালান প্রচেষ্টা ঠেকাতে এ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

ভারতীয় এই সীমান্তরক্ষী বাহিনী দুটি দেশের সঙ্গে সীমান্ত সুরক্ষায় বিশাল উপায়ে প্রযুক্তিগত সমন্বয় করছে।

ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস অব ইন্ডিয়া বলছে, ইন্দো-পাক আন্তর্জাতিক সীমান্তে বেশ কিছু সুরঙ্গ শনাক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে কিছুদিন আগে বাংলাদেশ সীমান্তেও একটি সুরঙ্গ শনাক্ত করেছে বিএসএফ।

laser

উল্লেখ্য, গত বছরের এপ্রিলে পাক-ভারত সীমান্ত এলাকার পাঞ্জাবের কাছে লেজার রশ্মির প্রাচীর দিয়েছে ভারত। পাক-ভারত সীমান্তের যেসব দুর্গম এলাকায় কাঁটাতার বসানো যায় না এমন ১২টি জায়গায় লেজার রশ্মির প্রাচীর দেয়া হয়।

লেজার রশ্মির প্রাচীর কী?

উপগ্রহ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থার মাধ্যমে লেজার রশ্মির প্রাচীর কাজ করে। সীমান্তে লেজার রশ্মি প্রাচীর অতিক্রম করতে গেলেই সেন্সর সঙ্কেত পাঠিয়ে দেবে কমান্ড সিস্টেমে। কোনো এলাকায় অবৈধ গতিবিধি বা অস্বাভাবিকতা দেখা গেলে তা নিখুঁতভাবে বলে দেবে এই সঙ্কেত। সঙ্গে সঙ্গে সেই এলাকা বিএসএফের নজরে চলে আসবে।

এসআইএস/এমএস