৪৩০ ফিলিস্তিনিকে গ্রেফতার করেছে ইসরায়েল, আহত ৩৪০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১২ এএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ১১:২৭ এএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেরুজালেম ঘোষণার পর থেকে এখন পর্যন্ত অধিকৃত গাজা উপত্যকা ও পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনী অন্তত ৪৩০ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে। এছাড়া ইসরায়েলি নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিন হাজার ৪০০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন।

ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট (পিআরসি) বলছে, দুই হাজার ৮০৯ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন এবং শনিবার পর্যন্ত তারা অধিকৃত পশ্চিম তীর ও জেরুজালেমে চিকিৎসা নিয়েছেন। এছাড়া গাজা উপত্যকায় আরো প্রায় ৬২২ জন আহত হয়েছেন।

পিআরসি এক বিবৃতিতে বলছে, পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে ৭৭ ও পশ্চিম তীরে ১৮৭ জন আহত হয়েছেন। রাবার বুলেটে উভয় ভূখণ্ডে আরো ৬২৪ জন আহত হয়েছেন। ব্যাপক টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপের কারণে আরো দুই হাজার ৩০৯ জন শ্বাস-কষ্টে ভূগছেন; তবে এদের অধিকাংশই অধিকৃত পশ্চিম তীর ও জেরুজালেমের।

অন্যরা পশ্চিম তীর ও জেরুজালেমে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনীর মারপিটে আহত হয়েছেন; এদের অনেকেই গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় আঘাতপ্রাপ্ত।

এদিকে, ফিলিস্তিন প্রিজনারস ক্লাব (পিপিসি) বলছে, ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী অধিকৃত পশ্চিম তীর ও জেরুজালেমে ৪৩০ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে। এক বিবৃতিতে পিপিসি বলছে, আটককৃতদের মধ্যে ২৩১ শিশু, ৯ নারী ও তিন আহত ফিলিস্তিনি রয়েছেন।

গত ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে জেরুজালেমে নেয়ারও ঘোষণা দেন তিনি। ইসরায়েল-ফিলিস্তিন শান্তি প্রক্রিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নীতির নাটকীয় পরিবর্তনের জেরে ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হয় বিশ্বজুড়ে।

ট্রাম্পের এই ঘোষণার প্রতিবাদে গত মঙ্গলবার ইস্তাম্বুলে ইসলামিক সহযোগিতা পরিষদের (ওআইসি) জরুরি এক সম্মেলনে জেরুজালেমকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিলিস্তিনি রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর, রয়টার্স।

এসআইএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :