২০ বছরে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে শিশুরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪০ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

প্রতি ছয়জনে একজন শিশু যুদ্ধ-সংঘাতপূর্ণ এলাকায় বাস করছে। ফলে যুদ্ধের বলি হতে হচ্ছে তাদের। সম্প্রতি শিশু বিষয়ক সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন নতুন এক রিপোর্টে এমন তথ্য প্রকাশ করেছে। খবর বিবিসি।

গত ২০ বছরের মধ্যে সাম্প্রতিক সময়গুলোতেই সংঘাতময় এলাকায় শিশুদের জীবন সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। নতুন এক বিশ্লেষণী প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ৩ কোটি ৫৭ লাখ শিশু সংঘাতপূর্ণ এলাকায় বসবাস করছে। ১৯৯৫ সালে এই সংখ্যা ছিল ২ কোটি। অর্থাৎ এই সংখ্যা প্রায় ৭৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

শিশুদের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে সিরিয়া, আফগানিস্তান এবং সোমালিয়াকে। মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশকেও শিশুদের জন্য অনিরাপদ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের প্রতি ৫০ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে সংঘাত বা মারাত্মক হামলার শিকার হচ্ছে প্রতি পাঁচজনে দুইজন শিশু। এর মধ্যে আফ্রিকা তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে।

প্রায় ১ কোটি ৬৫ লাখ শিশু সংঘাতময় এলাকায় তীব্র বিপজ্জনক পরিস্থিতির মধ্যে বসবাস করছে। জাতিসংঘ এবং অন্যান্য বিশ্লেষণী তথ্য ব্যবহার করেই নতুন প্রতিবেদন তৈরি করেছে সেভ দ্য চিলড্রেন। সংঘাতপূর্ণ এলাকায় হাসপাতাল এবং স্কুলে হামলার ঘটনা অনেক বেড়ে গেছে। ফলে এসব হামলায় শিশুরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এবং শিশুমৃত্যু বাড়ছে।

হামলায় ব্যবহৃত কিছু অস্ত্র যেমন রাসায়নিক অস্ত্র, ল্যান্ডমাইন, ক্লাস্টার বোমা হামলা আগের চেয়ে কমলেও অন্যান্য হুমকি থেকেই যাচ্ছে। বিভিন্ন স্থানে আত্মঘাতী হামলায় শিশুদের ব্যবহার করছে জঙ্গিরা। সংঘাতপূর্ণ এলাকায় আহত বা নিহত হওয়া ছাড়াও শিশুরা প্রয়োজনীয় স্যানিটেশন এবং শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সেসব এলাকায় বহু শিশু খাদ্যের অভাবে অপুষ্টিতে ভুগছে।

টিটিএন/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :