জম্মু-কাশ্মীরে রাজ্যপালের শাসন জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:১৬ পিএম, ২০ জুন ২০১৮

ভারতের জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির পদত্যাগের পর সেখানে রাজ্যপালের শাসন কার্যকর হয়েছে। এই নিয়ে সেখানে ১৯৭৭ সাল থেকেেএ পর্যন্ত অষ্টমবার রাজ্যপালের শাসন জারি হল।

জোট সরকারের উপর থেকে বিজেপি সমর্থন প্রত্যাহারের পর পরই মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তারপরই রাষ্ট্রপতি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রিপোর্ট পাঠান রাজ্যের রাজ্যপাল এনএন ভোরা। তার মধ্যেই পিডিপি ও অন্যান্য দলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। কিন্তু কোনো পক্ষই সরকার গঠনের দাবি না জানানোয় রাষ্ট্রপতির কাছে শাসনের জন্য অনুমতি চান। ভারতের রাষ্ট্রপতি তাতে সম্মতি দেয়ায় জম্মু-কাশ্মীরে জারি হয়েছে রাজ্যপালের শাসন।

রাজ্যপালের শাসন জারি হওয়ার পর এনএন ভোরা এখন চাইলে বিধানসভা ভেঙে দিতে পারেন। অথবা ‘সাসপেন্ডেড অ্যানিমেশন’ হিসাবে রাখতে পারেন। যার অর্থ, বিধায়কদের দফতর চালু থাকবে, কিন্তু তাদের কোনো ক্ষমতা থাকে না। কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা থাকে না বিধানসভারও। আর বিধানসভা ভেঙে দিলে ছয় মাসের মধ্যে ভোট প্রক্রিয়া শেষে করতে হয় নির্বাচন কমিশনকে। তবে এই বিষয়টি সাধারণত কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনা করেই রাজ্যপাল করে থাকেন। রাজ্যপালের শাসন চলাকালীন তিনিই কার্যত মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকা পালন করেন। আর মন্ত্রীর সমান ক্ষমতা ও পদমর্যাদা ভোগ করেন তার উপদেষ্টারা। সূত্র : পিটিআই

এমএমজেড/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :