কোনো চুক্তির ব্যাপারেই যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্বাস করা যায় না

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫৯ এএম, ১৫ জুলাই ২০১৮

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, পাশ্চাত্যের সঙ্গে তার দেশের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা প্রমাণ করেছে, কোনো চুক্তির ব্যাপারেই মার্কিন সরকারের ওপর আস্থা রাখা যায় না। তিনি শনিবার পরমাণু সমঝোতা স্বাক্ষরিত হওয়ার তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে এক টুইট বার্তায় এমন মন্তব্য করেন। খবর পার্স ট্যুডে।

যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া ও জার্মানিকে নিয়ে গঠিত ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের দীর্ঘদিন ধরে কঠিন আলোচনার পর ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই পরমাণু সমঝোতা সাক্ষর করে দু’পক্ষ। পরে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে সমঝোতাটি অনুমোদনের মাধ্যমে এটি আন্তর্জাতিক আইন হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে।

কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত ৮ মে সেই আইন লঙ্ঘন করে একতরফাভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে ওই সমঝোতা থেকে বের করে নেন।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর টুইট বার্তায় আরও বলা হয়েছে, ইরান আগে থেকেই জানত যুক্তরাষ্ট্র নিজের দেয়ার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে না। বিষয়টি আমেরিকার মিত্ররা ইদানিং উপলব্ধি করতে পেরেছে। পরমাণু সমঝোতা প্রমাণ করেছে, ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনকে কোনো চুক্তির ব্যাপারেই বিশ্বাস করা যায় না।

জাভেদ জারিফ আরও বলেন, মার্কিন সরকারের বেআইনি পদক্ষেপ সত্ত্বেও তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে পরমাণু সমঝোতা বহুপাক্ষিক কূটনীতির এক সফল উদাহরণ হয়ে রয়েছে।

পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকা বেরিয়ে গেলেও বাকি পাঁচ দেশ ইরানকে এটি বাস্তবায়ন করার আশ্বাস দিয়েছে। তেহরান স্পষ্ট ভাষায় ওইসব দেশকে বলেছে, পরমাণু সমঝোতার আওতায় ইরানের যেসব অর্থনৈতিক সুবিধা পাওয়ার কথা ছিল ইউরোপীয় দেশগুলোকে তা নিশ্চিত করতে হবে।

টিটিএন/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :