হরিয়ানায় মাধ্যমিকে প্রথম হওয়া ছাত্রীকে গণধর্ষণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:২৫ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আবারও হরিয়ানায় গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ১৯ বছরের এক ছাত্রীকে কোচিং থেকে বাড়ি ফেরার পথে গণধর্ষণ করেছে এক দল দুষ্কৃতকারী। মেয়েটি বাড়ি ফেরার সময় তাকে জোর করে গাড়িতে তুলে নেয়া হয়। পুলিশের কাছে অভিযোগে ওই নির্যাতিতা জানিয়েছেন, দুষ্কৃতকারীরা তার গ্রামেরই বাসিন্দা।

ওই কিশোরী দশম শ্রেণির মাধ্যমিক পরীক্ষায় (সিবিএসই) শীর্ষ স্থানে ছিলেন। রাষ্ট্রপতির হাত থেকে পুরস্কারও নিয়েছেন তিনি। মেধাবী ওই ছাত্রী হরিয়ানার রেওয়ারি জেলার বাসিন্দা। কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, কয়েক দিন আগে বাড়ি ফেরার পথে কয়েক জন ব্যক্তি ওই তরুণীকে জোর করে তুলে নিয়ে যায়।

একটি ফাঁকা মাঠে নিয়ে গিয়ে তাকে গণধর্ষণ করে। ঘটনাস্থলে হাজির আরও কয়েক জন কিশোরীকে শারীরিক নিগ্রহ করে। এরপর কানিনায় একটি বাস স্ট্যান্ডের সামনে অচেতন অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে চলে যায় দুষ্কৃতকারীরা।

প্রথমে ওই ছাত্রীকে শারীরিক নিগ্রহের ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসে বুধবার। তার পরিবারের তরফ থেকে থানায় অভিযোগ জানালে প্রথমে তা নেওয়া হয়নি বলে জানানো হয়েছে। ধর্ষণে অভিযুক্তরা তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। রেওয়ার মহিলা থানায় এই ঘটনায় একটি ‘জিরো এফআইআর’ দায়ের করা হয়েছে। তাদের দাবি, ধর্ষণের ঘটনাটি কোথায় ঘটেছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। সেই কারণেই ‘জিরো এফআইআর’ নেওয়া হয়েছে।

টিটিএন/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :