ভেনেজুয়েলায় দুটি বোমারু যুদ্ধবিমান পাঠালো রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪৫ পিএম, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ভেনেজুয়েলায় পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম দুইটি বোমারু যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে রাশিয়া। সোমবার ভেনেজুয়েলায় বোমারু বিমান দুটি অবতরণ করলে এর নিন্দা জানায় যুক্তরাষ্ট্র। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী ধারণা করা হচ্ছে, ভেনেজুয়েলার সমাজতান্ত্রিক সরকারের প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে সহযোগিতা করতেই পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম যুদ্ধবিমান পাঠালো মস্কো। ভেনেজুয়েলার অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্র দেশটিকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে। এমন আশঙ্কার প্রেক্ষিতে ঘনিষ্ঠ মিত্র দেশটিকে যুদ্ধবিমান পাঠালো রাশিয়া।

ভেনেজুয়েলায় রুশ যুদ্ধবিমান অবতরণের পর ওয়াশিংটনের পক্ষে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘দুটি দূর্নীতিগ্রস্ত সরকার দেশের জনগণের টাকা লুট করছে।’ তবে পম্পেও’র এমন মন্তব্যকে সম্পূর্ণভাবে অসঙ্গত বলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে রাশিয়া।

রুশ সরকারের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ‘এমন একটি দেশ আমাদের সম্বন্ধে মন্তব্য করেছে, যাদের প্রতিরক্ষা বাজেটের অর্ধেক দিয়ে পুরো আফ্রিকার অন্ন সংস্থান করা সম্ভব।’ গত রোববার ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ভেনেজুয়েলাকে অস্থিতিশীল করে তোলার অভিযোগ আনেন।

সোমবার ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাসের কাছে মাইকুয়েতিয়া বিমানবন্দরে সামরিক বিমানসহ রাশিয়ার দূর পাল্লার টিইউ-১৬০ বোমারু বিমান দুটি অবতরণ করে। পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম এ টিইউ-১৬০ বিমানগুলো আন্তর্জাতিক মহলে ‘সাদা রাজহাঁস’ নামে পরিচিত। এটি একবার জ্বালানি নিয়ে টানা ১২ হাজার মাইল দূরত্ব পর্যন্ত উড়তে সক্ষম।

এসএ/জেআইএম