গ্রেফতারের ভয়ে নিজের মাথায় গুলি করলেন পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫৫ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯

পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট অ্যালেন গার্সিয়া। অর্থ পাচারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। কিন্তু গ্রেফতারের জন্য পুলিশ যখন তার বাড়ির দরজায় আসে তখন তিনি নিজের মাথায় গুলি করেন। পরে তাকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ৬৭ বছর বয়সী অ্যালান গার্সিয়াকে রাজধানী লিমার কাসিমিরো উল্লোয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মাথায় বুলেটবিদ্ধ দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্ট এখন কোমায় (অচেতন) আছেন বলে জানা গেছে।

অ্যালান গার্সিয়ার বিরুদ্ধে ব্রাজিলের ঠিকাদারি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওদেরব্রেখটের কাছ থেকে ঘুষ নেয়ার অভিযোগ আছে। কিন্তু তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। গ্রেফতারের জন্য তার বাসভবনে পুলিশ পাঠানো হলে এমন ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন>> অর্থ সংকটে কার্যক্রম বন্ধ করল জেট এয়ারওয়েজ

গার্সিয়ার আইনজীবী এরাসমো রেনা তার মক্কেলের মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়া খবর নিশ্চিত করেছেন। দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বর্তমান শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এরাসমো রেনা আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে তার অপারেশন চলছে। চলুন সবাই সৃষ্টিকর্তার কাছে আর্জি জানাই যেন তিনি তাকে পরিস্থিতি সামলে ওঠার শক্তি দেন।‘

পেরুর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল পৌনে সাতটার সময় গার্সিয়া মাথায় বুলেটবিদ্ধ অবস্থায় রাজধানী পেরুর কাসিমিরো উল্লোয়া হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে সকাল সোয়া সাতটায় তার অপারেশন শুরু হয়ে এখনো চলছে।

এসএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :