মধ্যপ্রাচ্যে ক্ষেপণাস্ত্র ও যুদ্ধজাহাজ পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৭ পিএম, ১১ মে ২০১৯

ইরানের সঙ্গে চলমান ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মাঝে মধ্যপ্রাচ্যে এবার আধুনিক প্রযুক্তির প্যাট্রিয়ক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ও যুদ্ধজাহাজ পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

পেন্টাগন বলছে, উপসাগরীয় অঞ্চলে মোতায়েনকৃত যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস আব্রাহাম লিঙ্কনের সঙ্গে উভচর যান ও উড়োজাহাজ পরিবহনে সক্ষম ইউএসএস আর্লিংটন যোগ দেবে। কাতারে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতে ইতোমধ্যে মার্কিন বোমারু বিমান বি-৫২ পৌঁছেছে।

ওয়াশিংটন বলছে, ওই অঞ্চলে মার্কিন নিরাপত্তাবাহিনীর ওপর ইরানের সম্ভাব্য হুমকির মোকাবেলায় এসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তবে ইরান এই দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলছে, নির্বোধের মতো দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধজাহাজ ও ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েনের মাধ্যমে দেশটিতে হস্তক্ষেপের লক্ষ্যে মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে তেহরান। একই সঙ্গে ইরান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ পারমাণবিক কর্মসূচি পুনরায় শুরু করার হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

us-warship-1

পেন্টাগন বলছে, ইরানের সম্ভাব্য হামলার হুমকি মোকাবেলা করছে মার্কিন নিরাপত্তাবাহিনী। কিন্তু ইরান কী ধরনের হুমকি তৈরি হয়েছে সেব্যাপারে নির্দিষ্ট করে কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

শুক্রবার পেন্টাগনের এক বিবৃতিতে শুধুমাত্র বলা হয়েছে, এই অঞ্চলে মার্কিন নিরাপত্তাবাহিনী ও তাদের স্বার্থের সুরক্ষায় প্রস্তুত আছে ওয়াশিংটন। তবে তারা তেহরানের সঙ্গে সংঘর্ষ চায় না বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

ইরানের প্রতিবেশি ইরাকে বর্তমানে ৫ হাজার ২০০ মার্কিন সেনাসদস্য মোতায়েন রয়েছে।

সূত্র : বিবিসি।

এসআইএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]