সরকারি টাকা ‘চুরির’ কথা স্বীকার করলেন নেতানিয়াহুর স্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৬ পিএম, ১৬ জুন ২০১৯

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর স্ত্রী স্বীকার করেছেন যে, তিনি রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে না জানিয়ে অর্থ নিয়ে তার অপব্যহার করেছেন। সরকারি তহবিল থেকে অর্থ নেয়ায় এখন তাকে ১৫ হাজার ডলার জরিমানা গুণতে হবে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর স্ত্রী সারা নেতানিয়াহু রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে ৯৯ হাজার ৩০০ ডলার দিয়ে বাড়ির বাইরে থেকে খাবার নিয়ে আসার অভিযোগে অভিযূক্ত। আত্মপক্ষ নিয়ে সারা জানিয়েছেন, সেদিন প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে ক্যাটারিং সার্ভিস খাবার সরবরাহ করেনি বলেই এমনটা করেছেন তিনি।

গত বছর তার বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণা ও নিয়মভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়। তার আইনজীবী বলেন, এ নিয়ে তার (সারা নেতানিয়াহু) কিছু করার ছিলনা। তার স্বামীকে ক্ষমতা থেকে নামানোর জন্যই এসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ইসরায়েলের দৈনিক জেরুজালেম পোস্ট একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে, তিনি (নেতানিয়াহুর স্ত্রী) ফৌজদারি আইনে অপরাধী হিসেবে বিবেচিত হবেন। আর সেটা অনুযায়ী, সরকারকে ১২ হাজার ৪৯০ এবং অতিরিক্ত আরও ২ হাজার ৭৭৭ ডলার জরিমানা দিতে হবে।

সরকারি কৌসুলি আরেজ পেডান বলেন, এই ফৌজদারি মামলা ‘বিশেষ সুবিধা’ তৈরি করবে যার কারণে একটি ভারসাম্যপূর্ণ সমঅধিকারের বিষয়টি প্রতিষ্ঠিত করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এ ধরনের স্বীকারোক্তির মাধ্যমে আদালতকে ৮০ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য নেয়া থেকে বিরত রাখছে।

গত বছর সারা নেতানিয়াহুর আইনজীবী যুক্তি উপস্থাপনে বলেন, তিনি (সারা) বাইরের ক্যাটারিং সার্ভিস থেকে খাবার আনার বিষয়ের নিয়মকানুন সম্পর্কে কিছু জানতেন না। তা ছাড়া বাড়ির ম্যানেজারও ওই খাবার অর্ডার করেননি।

এসএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :