মার্কিন নিষেধাজ্ঞা এলে প্রতিশোধ নেয়া হবে : তুরস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫২ পিএম, ২২ জুলাই ২০১৯

রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার কারণে যুক্তরাষ্ট্র যদি কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তাহলে তার প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দিয়েছে তুরস্ক। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী তুর্কি সরকারের পক্ষে সোমবার এ হুশিয়ারি দেন।

চলতি মাসের শুরুতে বেশ কয়েকটি চালানে রাশিয়ার তৈরি ভূমি থেকে আকাশে উৎক্ষেপণযোগ্য এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা তুরস্কে পৌছায়। আর এই ঘটনার পর নিরাপত্তার কথা বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাদের দীর্ঘদিনের ন্যাটো মিত্র তুরস্কের কাছে এফ-৩৫ স্টিলথ যুদ্ধবিমান আর বেঁচবে না বলে ঘোষণা দেন।

জাতীয় টেলিভিশন টিজিআরটিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, ‘যদি যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সঙ্গে কোনো ধরনের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আচরণ করে তাহলে আমরাও প্রতিশোধমুলক পদক্ষেপ গ্রহণ করবো। এটা কোনো হুমকি কিংবা ধাপ্পাবাজি নয়।’

পাল্টাপাল্টি হুমকি প্রসঙ্গে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এমন কোনো দেশ নই যাদের সঙ্গে পেছনে রেগে শত্রুতা করে কেনো দেশ পার পেয়ে যাবে।’ তবে তিনি এও বলেন, তিনি প্রত্যাশা করেন না মার্কিন প্রশাসন এমন কোনো পদক্ষেপ নেবে যা এমন অবস্থানে যেতে বাধ্য করবে তুরস্ককে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু আরও বলেন, ‘ট্রাম্প তুরস্কের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চান না। এ ছাড়া তিনি প্রায়ই বলেন তার প্রশাসন এবং আগের মার্কিন প্রশাসনকে তরুস্কের কাছে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা বিক্রি না করার জন্য দায়ী করেন। এটা সত্য।’

jagonews

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা দেয় এফ-৩৫ প্রোগ্রাম থেকে তুরস্ককে বাদ দেয়ার সব রকমের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে তারা। এফ-৩৫ হলো মার্কিন প্রযুক্তিতে তৈরি সবচেয়ে আধুনিক যুদ্ধবিমান। যা ন্যাটোভূক্ত দেশসহ অংশীদার অন্য দেশগুলো ব্যবহার করে।

এসএ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :