‘হিন্দুরা এদেশেই থাকবে, বাংলাদেশি মুসলিম-রোহিঙ্গাদের তাড়ানো হবে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪৩ এএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আসামে চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা প্রকাশের পর থেকেই আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন তালিকা থেকে বাদ পড়া ১৯ লাখ মানুষ। এর বেশিরভাগই মুসলিম। এদিকে আসামের পর এবার পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিক তালিকা বা এনআরসি করতে চাইছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে এনআরসির বিরোধী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার তিনি এর বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে মমতা বলেন, বাঙালিদের বাংলা (পশ্চিমবঙ্গ) থেকে উচ্ছেদ করতে চাইছে বিজেপি।

এদিকে, তৃণমূল নেত্রীর এমন অভিযোগের জবাব দিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, আমরা কাউকে তাড়াতে চাই না। বাংলাদেশের মুসলিম ও রোহিঙ্গারা মমতার আশ্রয়ে থাকে। কিন্তু আমরা চাই হিন্দুরা এদেশেই থাকবে।

আসামের নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়া হিন্দুদের আশ্বাস দিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, হিন্দুদের ভয় পাওয়ার কারণ নেই। সব বিরোধী এক হলেও এনআরসি আটকাতে পারবে না।

তিনি বলেন, কাউকে তাড়ানো আমাদের লক্ষ্য না। ভারতের উন্নয়নে বাধা দিতে চায়, আইনশৃঙ্খলায় বাধা দেয়, এখানকার মানুষকে অতিষ্ঠ করে এমন লোকজন এদেশে থাকতে পারবে না। দুই কোটি বাংলাদেশি মুসলিম এদেশে ঢুকেছে।

এর মধ্যে এক কোটি রয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। এক কোটি জম্মু পর্যন্ত চলে গেছে। ওপার বাংলায় অত্যাচারিত-নিপীড়িত হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেয়া হবে। কিন্তু বাংলাদেশি মুসলিম আর রোহিঙ্গাদের দেশ থেকে তাড়ানো হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

টিটিএন/এমএস