গোবরে ডুবে চার ভারতীয় শিখের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫৭ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ভারতের পাঞ্জাব থেকে পাড়ি জমানো চারজন শিখ ব্যক্তি ইতালিতে একটি দুগ্ধ খামারের গোবরের ট্যাংকে ডুবে মারা গেছেন। ইতালির উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত পাভিয়ার নামে এক এলাকার কাছে এ ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত কর্মকর্তারা বলছেন, গোবর সার থেকে নির্গত কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসেই হয়তো তাদের মৃত্যু হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দুগ্ধ খামারে একটি গোবর সারের ট্যাংক খালি করছিলেন তারা। তাদের একজন ট্যাংকের ভেতর পড়ে যান। তাকে উদ্ধারের জন্য অপর তিনজন যখন ট্যাংকের ভেতর লাফ দেন, তখন সবাই ঘটনাস্থলে মারা যান।

যে চার ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে দুজন ছিলেন সেই খামারটির মালিক। অপর দুজন সেখানে কর্মচারী হিসেবে কাজ করতেন। তারা সবাই ভারতীয় নাগরিক। স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী এরেনা পো নামের এই খামারটি ছিল পাভিয়া অঞ্চলের সবচেয়ে বড় গরুর খামার।

২০১৭ সালে পাঞ্জাবের বাসিন্দা প্রেম সিং ও তার ভাই তারসেম সিং খামারটি শুরু করেন। ইতালির মিরান শহর থেকে এর দূরত্ব ছিল প্রায় ৪৫ কিলোমিটার। দুর্ঘটনায় নিহত অপর দুজন হচ্ছেন অমিন্দর ও মাজিনদার সিং।

ঘটনা জানাজানি হয় বৃহস্পতিবার দুপুরে। কেননা প্রতিদিন খাবার বাড়িতে আসলেও সেদিন তারা বাড়ি ফেরেননি। বিষয়টি নিয়ে তাদের স্ত্রীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা দেখতে পান গোবরের ভেত তাদের স্বামীদের মরদেহ পড়ে আছে।

পরে তারা স্থানীয় দমকল কর্মীদের জানালে তারা এসে গোবরের ট্যাংক থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করেন। ইতালির গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, এ নিয়ে এবছর কর্মস্থলে দুর্ঘটনায় দেশটিতে মোট ৪৮৬ জনের মৃত্যু হলো। যা আগের বছরের তুলনায় বেশি।

দেশটির সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত কৃষিমন্ত্রী তেরেসা বেলানোভা এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করে বলেছেন, কর্মস্থলের নিরাপত্তাকে তারা মানুষের অবিচ্ছেদ্য অধিকার বলে মনে করেন। এই অধিকার নিশ্চিত করতে যা যা করার দরকার তা করতেই হবে। কৃষিমন্ত্রী নিজেও কিশোর বয়সে একজন খামার শ্রমিক ছিলেন।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

এসএ/পিআর