ওয়াশিংটন পোস্টে বাগদাদির মৃত্যুর খবরের শিরোনাম ঘিরে ক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০০ পিএম, ২৯ অক্টোবর ২০১৯

জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি মারা গেছেন। মার্কিন বিশেষ বাহিনীর অভিযানে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে আইসের এই প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নিহত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের তরফ থেকে বাগদাদির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। শনিবার সিরিয়ায় মার্কিন বাহিনী অভিযান চালালে নিজের সঙ্গে থাকা বিস্ফোরকে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজের তিন সন্তান নিয়ে আত্মঘাতী হন বাগদাদি। এদিকে বাগদাদির মৃত্যুর খবর ঘিরে বিশ্বের প্রথম সারির সংবাদপত্র ওয়াশিংটন পোস্টের সংবাদ শিরোনাম নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

রোববার আইএস প্রধানের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, গত রাতে (শনিবার) যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের এক নম্বর জঙ্গি নেতার সুবিচার করেছে। হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে এক ঘোষণায় বলা হয়, সে (বাগদাদি) ছিল একজন অসুস্থ আর হীন চরিত্রের মানুষ। আর এবার সে শেষ হয়েছে।

এই খবর প্রকাশের সময় ওয়াশিংটন পোস্টের শিরোনাম দেয়া হয়েছে, আবু বকর আল বাগদাদি, ইসলামিক স্টেটের জঙ্গি প্রধান, ৪৮ বছর বয়সে মারা গেলেন। কিন্তু পরে তা বদলে করা হয়- আবু বকর আল বাগদাদি, উগ্র ধর্মীয় গুরু, ৪৮ বছর বয়সে মারা গেলেন।

এরকম কুখ্যাত একজন জঙ্গিকে কীভাবে ‘ধর্মগুরু’ লেখা হল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ধর্মগুরু লিখে তার অপরাধকে কমিয়ে দেখা হয়েছে এমন মন্তব্যও ওঠে। আর এ নিয়েই সামাজিক মাধ্যমে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। চারদিকে সমালোচনা শুরু হওয়ার পরেই দ্রুত ‘উগ্র ধর্মগুরু’ লেখা শিরোনাম পাল্টে ওয়াশিংটন পোস্ট শিরোনাম করে, আবু বকর আল বাগদাদি, ইসলামিক স্টেটের চরমপন্থী নেতা, ৪৮ বছর বয়সে মারা গেলেন।

এই ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন ওয়াশিংটন পোস্টের যোগাযোগ বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিন কোরাত্তি কেলি। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আল বাগদাদির মৃত্যু সংবাদের শিরোনাম এভাবে করা উচিত হয়নি আমাদের এবং আমরা দ্রুত তা বদলেও দিয়েছি।

টিটিএন/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]