নওয়াজকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫১ এএম, ১১ নভেম্বর ২০১৯

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে সরকার। তার শারীরিক অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় চিকিৎসার জন্য তাকে জরুরি ভিত্তিতে বিদেশে নেয়া প্রয়োজন। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

পাকিস্তানের দীর্ঘ সময়কার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নওয়াজ শরিফ। ২০১৭ সালে তৃতীয় দফা ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি দুর্নীতির অভিযোগে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

কারাগারে থাকা অবস্থায় গত ২২ অক্টোবর হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়ায় নওয়াজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দু'সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে গত বুধবার তার বাসভবনে বিশেষ মেডিকেল ব্যবস্থা তৈরি করা হয় এবং তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়।

নওয়াজ শরীফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব এক বিবৃতিতে জানান, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য তার বাসভবনেই আইসিইউ স্থাপন করা হয়েছে।

এর আগে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, নওয়াজের শারীরিক অবস্থা এখনও সঙ্কটাপন্ন। তাকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দেয়া হয়। প্রথমদিকে স্বাস্থ্যগত কারণে নওয়াজকে জামিন দেয়া হলেও তার বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশী বলেছেন, নওয়াজ শরিফের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। যেহেতু চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার জীবন বাঁচাতে বিদেশে চিকিৎসা করানোটা জরুরি তাই তার বিদেশ সফরে আর কোনো বাধা থাকছে না।

তিনি বলেন, সরকার চিকিৎসকদের মতামতের গুরুত্ব দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আমরা তার সুস্থতা কামনা করি। তিনি যেন আবারও সুস্থ হয়ে দেশে ফিরতে পারেন এবং রাজনীতিতে অংশ নিতে পারেন সেই কামনাই করি। তবে একটি সূত্র বলছে, নওয়াজ শরিফ বিদেশে চিকিৎসার জন্য যেতে চান না।

টিটিএন/পিআর