ভায়াগ্রা মেশানো পানি খেয়ে ৮০ হাজার ভেড়ার ‘তাণ্ডব’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৩ পিএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

খামারের পাশের একটি জলাশয়ে নিয়মিত পানি পান করতো একপাল ভেড়াসহ কয়েকশ গবাদিপশু। সপ্তাহ খানেক আগে দুর্ঘটনাবশত সেখানকার একটি ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থার কারখানার ভায়াগ্রা তৈরির কয়েক টন ভেষজ উপাদান জলাশয়ের পানিতে ফেলা হয়। সেখানকার পানি পানের পর ভেড়াগুলো ‘তাণ্ডব’ শুরু করেছে।

জলাশয়ের পানি পানের পর থেকেই অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে ৮০ হাজার ভেড়া পালটি। ভায়াগ্রা (যৌন উত্তেজক ওষুধ) মিশ্রিত পানি খেয়ে ভেড়ার পালটির যৌন উন্মাদনা মাত্রাতিরিক্ত হারে বেড়েছে। এক সপ্তাহ ধরে যৌন মিলনের ক্ষেত্রে সক্রিয় হয়ে ওঠায় এসব প্রাণীকে নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খাচ্ছেন খামারের মেষপালকরা।

দক্ষিণ আয়ারল্যান্ডের রিঙ্গাস্কিডি এলাকায় অদ্ভুত এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানা গেছে, ওই এলাকায় ফাইজার নামে একটি ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থার কারখানা রয়েছে। সেখানকার ভায়াগ্রা তৈরির কয়েক টন ভেষজ উপাদান রিঙ্গাস্কিডি এলাকার পোতাশ্রয়ের (রিঙ্গাস্কিডি হারবার) পানিতে ফেলে দেয়ার কারণে এমনটা শুরু হয়।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভায়াগ্রা উৎপাদনে ব্যবহৃত ৭৫৫ টনেরও বেশি পরিমাণ ভেষজ সপ্তাহ খানেক আগে রিঙ্গাস্কিডি হারবারের পানিতে পড়ে যায়। তাতেই দূষিত হয়েছে ওই পোতাশ্রয়ের পানি।

পানি পানের পর ভেড়াগুলি ছাড়াও শতাধিক গবাদি পশুর আচরণে অস্বাভাবিক পরিবর্তন এসেছে। জলাশয়ে ভায়াগ্রা দূষণের ফলে হাজার হাজার গবাদি পশুর শরীরে তা যে অস্বাভাবিক প্রভাব পড়েছে তা স্বাভাবিক হতে আরও কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা।

এসএ/এমএস