ভারতে সাত দিনে ২৫ বার ভূমিকম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৮ এএম, ০৬ জুলাই ২০২০

ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে গত সাতদিনে ২৫ বার ভূমিকম্প হয়েছে। মাত্র কয়েক দিনে এতবার ভূমিকম্প হওয়ায় দেশটির ভূ-বিজ্ঞানীদের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোববার (৫ জুলাই) উত্তর-পূর্বের মিজোরাম রাজ্যে আরও একবার ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৪.৬। মিজোরামের চম্পাইতে এই কম্পন অনুভূত হয়। ভূকম্পনের উৎসস্থল চম্পাই থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে। উৎসস্থলের গভীরতা ছিল ৭৭ কিলোমিটার।

এদিকে কাশ্মীরের লাদাখের কার্গিল এলাকায় ভারতের স্থানীয় সময় রোববার ভোর ৩টা ৩৭ মিনিটে ভূকম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ৭। দেশটির ন্যাশনাল সেন্টার সিসমোলজি (এনসিএস) জানায়, কার্গিল থেকে ৪৩৩ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে এই কম্পন আঘাত হানে।

গত শুক্রবার রাজধানী দিল্লিতে ভূমিকম্প হয় ৷ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৪.৭ ৷ ভূমিকম্পে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকাবাসী ৷ সেদিনও দিল্লির পাশাপাশি মিজোরামে ভূমিকম্প অনুভূত হয়।

ন্যাশনাল সেন্টার সিসমোলজির (এনসিএস) পরিসংখ্যানে জানানো হয়েছে, গত সাতদিনে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে মোট ২৫ বার ভূমিকম্প হয়েছে। গত ২৬ জুন মিজোরামে ১০ বার ভূমিকম্প হয়েছিল৷ মিজোরাম ১, মেঘালয় ১, লাদাখ ১, হরিয়ানা ১, জম্মু-কাশ্মীর ৬টি ভূকম্পন হয় ৷ ২৭ জুন হরিয়ানা ও জম্মু-কাশ্মীরে ভূমিকম্প হয়। ২৮ জুন মণিপুরে দুটি, মেঘালয়ে ১টি, আন্দামানে একটি ভূকম্পন হয় ৷

গত ৩০ জুন ফের হরিয়ানায় দুটি, জম্মু-কাশ্মীর একটি ভূমিকম্প হয় ৷ জুলাইয়ের ১ তারিখ মেঘালয়ে ২টি, জম্মু-কাশ্মীরে ১টি, ২ জুলাই জম্মু-কাশ্মীরে ফের ভূমিকম্প হয় ৷ ৩ জুলাই দিল্লি এনসিআর, মিজোরামে ভূমিকম্প হয় ৷

ভারতে একের পর এক ভূমিকম্পে আশঙ্কার মেঘ দেখা দিচ্ছে ভূ-বিজ্ঞানীদের কপালে। প্রায় প্রতিদিনই দিল্লি, লাদাখ, মিজোরাম, ত্রিপুরা, হরিয়ানার মতো একাধিক এলাকায় ভূমিকম্প হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভের রিপোর্ট বলছে, কোনো জায়গায় ছোট ছোট একাধিক কম্পন পর পর হওয়ার অর্থ বড় ভূমিকম্প হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। যদিও নিশ্চিতভাবে তা যে হবেই এমন কোনো কথা নেই। তবে এভাবে নিয়মিত ভূমিকম্প হওয়ায় উদ্বিগ্ন ভারতের ভূ-বিজ্ঞানীরা।

এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]