‘অনৈতিক পদ্ধতি’তে ব্যবসার অভিযোগে পাকিস্তানে ‘ফুডপান্ডা’ বয়কট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫৮ এএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

অনলাইনভিত্তিক বাড়িতে খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফুডপান্ডা বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তানের করাচির রেস্তোরাঁগুলো।

প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ‘অনৈতিক পদ্ধতি’ অনুসরণের অভিযোগ তুলে সম্প্রতি এ ঘোষণা দিয়েছে অল পাকিস্তান রেস্টুরেন্ট অ্যাসোসিয়েশেন (এপিআরএ)। পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অনলাইনে খাবার বিক্রিতে কমিশন ১৮ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ শতাংশ করার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এপিআরএ সাময়িকভাবে ফুডপান্ডা বয়কটের ঘোষণা দেয়। প্রায় ২০০ খাবারের দোকান ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত নেয়।

এ বিষয়ে ফুড পান্ডার প্রধান নির্বাহী বরাবর পাঠানো এক চিঠিও দিয়েছে এপিআরএ। চিঠিতে সংগঠনটির চেয়ারম্যান নাইম সিদ্দিকী বলেছেন, এই অনৈতিক প্রক্রিয়া বন্ধ না হলে স্থায়ীভাবে ফুডপান্ডা বয়কট করা হবে।

ডন বলছে, শুধু করাচিই নয়, ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ফুডপান্ডা বয়কট শুরু করেছে লাহোর রেস্টুরেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (এলআরএ), লাহোর রেস্টুরেন্টস ইউনিটি অ্যাসোসিয়েশন (এলআরইউ), ইসলামাবাদ রেস্টুরেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (আইআরএ)-সহ আরও অনেক সংগঠন।

খাবারের হোম ডেলিভারি সার্ভিস ফুডপান্ডার প্রধান সদর দফতর জার্মানির বার্লিন শহরে অবস্থিত। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফোন বা অনলাইনে খাবারের অর্ডার গ্রহণ ও ডেলিভারির কাজ করে থাকে এই প্রতিষ্ঠান।

এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]