যুক্তরাষ্ট্রে স্কুলে গুলিতে আহত তিন, ৬ষ্ঠ গ্রেডের ছাত্রী আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৫ এএম, ০৭ মে ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের আইডাহো অঙ্গরাজ্যের একটি স্কুলে বন্দুকের গুলিতে দুই শিক্ষার্থী ও এক কর্মী আহত হয়েছেন। তাদের দিকে এই গুলি চালিয়েছে ওই স্কুলেরই ৬ষ্ঠ গ্রেডের এক ছাত্রী। তাকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবর অনুসারে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে আইডাহোর রিগবি মিডল স্কুলে ঘটেছে এ ঘটনা। জেফারসন কাউন্টি শেরিফ স্টিভ অ্যান্ডারসন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে আটক ছাত্রীর নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

এক সংবাদ সম্মেলনে অ্যান্ডারসন জানান, ওই ছাত্রী তার স্কুলব্যাগে বন্দুক নিয়ে স্কুলে হাজির হয় এবং সহপাঠীদের দিকে গুলি চালায়।

শেরিফ বলেন, সে (ছাত্রী) স্কুলের ভেতরে ও বাইরে কয়েক রাউন্ড গুলি চালিয়েছে। কেন এমন করেছে এ বিষয়ে আমাদের কাছে খুব বেশি তথ্য নেই। সেটি তদন্ত করা হচ্ছে।

জেফারসন স্কুল ডিস্ট্রিক্ট সুপারিনটেনডেন্ট চ্যাড মার্টিন জানান, গুলির ঘটনার পরপরই সব শিক্ষার্থীকে তাৎক্ষণিকভাবে অভিভাবকদের সঙ্গে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। শুক্রবার স্কুলটি বন্ধ থাকবে।

School-2.jpg

তার কথায়, এটি সম্ভবত যেকোনো স্কুল ডিস্ট্রিক্টের জন্য সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন। আমরা এর জন্য প্রস্তুত হই, কিন্তু আপনি কখনোই প্রকৃতপক্ষে প্রস্তুত নন।

শেরিফ অ্যান্ডারসন জানান, স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে গুলির ঘটনার পরপরই একাধিক আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা তৎপর হয়।

জেফারসন কাউন্টি প্রসিকিউটিং অ্যাটর্নি মার্ক টেইলর জানিয়েছেন, তদন্তের ফলাফলের ভিত্তিতে ওই ছাত্রীর বিরুদ্ধে তিনজনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনা হতে পারে।

ইস্টার্ন আইডাহো রিজিওনাল মেডিক্যাল সেন্টারের ট্রমা পরিচালক মাইকেল লেমন জানিয়েছেন, গুলিতে আহতদের জখম গুরুতর নয়। এই মুহূর্তে তাদের কারো প্রাণহানীরও আশঙ্কা নেই।

তবে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারত। এক্ষেত্রে সবাই সৌভাগ্যবান বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]