যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তে ১৪ মেক্সিকান সেনা আটক, পরে মুক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪১ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

অবৈধভাবে সীমানা অতিক্রম করে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের পর মেক্সিকোর ১৪ সেনা সদস্যকে আটক করেছে মার্কিন সীমান্তরক্ষী বাহিনী। তবে আটকের কয়েক ঘণ্টা পরই তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। স্থানীয় সময় শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে তাদের আটক করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের কাস্টমস ও বর্ডার প্রোটেকশন (সিবিপি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, রাতে এল পাসো শহরের আন্তর্জাতিক সীমান্ত ক্রসিংয়ের কাছে দায়িত্বপালন করছিলেন সিবিপির কর্মকর্তারা। মধ্যরাতের পরপরই তারা সেখানে মেক্সিকোর দুটি সামরিক যান প্রবেশ করতে দেখেন। সামরিক যান দুটি আন্তর্জাতিক সীমানা পার হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছিল।

সিবিপি আরও জানায়, আটকের পর সিবিপির সেনারা নিরপাত্তার কারণে মেক্সিকান সেনাদের অস্ত্র ও সরঞ্জামাদি নিয়ে নেন। পরে মেক্সিকোর শীর্ষ কর্মকর্তারা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

তবে আটক মেক্সিকান সেনারা জানান, তারা যে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছেন তা বুঝতে পারেননি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, আটকের পর ১৪ সেনার মধ্যে ১৩ জনের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনেনি যুক্তরাষ্ট্র। তবে মেক্সিকোর এক সেনার কাছে ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য গাঁজা থাকায় তাকে জরিমানার আওতায় আনা হয়।

বেশ কয়েক ঘণ্টা আটক থাকার পর ১৪ মেক্সিক্যান সেনা, তাদের অস্ত্র-সামরিক সরঞ্জাম ও গাড়ি ভোর ৫টার আগেই দেশে ফেরত পাঠানো হয় বলেও জানিয়েছে সিবিপি।

তবে এ বিষয়ে মেক্সিকোর প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

এ ঘটনার পর সীমান্তে দুই ঘণ্টার জন্য চলাচল বন্ধ রাখা হয় বলে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, মার্কিন সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা চিৎকার করে মেক্সিকোর সেনাদের অস্ত্র নামিয়ে হাত উঁচু করতে বলেন।

ছবি এবং প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে রয়টার্স আরও জানায়, মার্কিন সেনারা মেক্সিকোর সেনাদের গাড়ি তল্লাশি করেন এবং সারিবদ্ধভাবে নিয়ে যান। এসময় তাদের হাতকড়া পরানো হয়েছিল বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

ইএ/এমএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]