মাথাপিছু আয়ে কাতারের পরেই কুয়েতের অবস্থান

জিসান মাহমুদ
জিসান মাহমুদ জিসান মাহমুদ , লেখক ও পর্যটক, কুয়েত
প্রকাশিত: ১০:২২ এএম, ০৩ অক্টোবর ২০২২
ফাইল ছবি

মাথাপিছু আয়ের দিক দিয়ে আরব বিশ্বে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে কাতার। সেখানে গড় মাথাপিছু আয় ১ লাখ ৮৩ হাজার একশ মার্কিন ডলার। ক্রেডিট সুইস ব্যাংকের গ্লোবাল ওয়েলথ রিপোর্টের বরাত দিয়ে দৈনিক আল-আনবা এ তথ্য জানিয়েছে।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কাতারের পর মাথাপিছু আয় ১ লাখ ৭১ হাজার ৩শ ইউএস ডলার নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কুয়েত। সংযুক্ত আরব আমিরাত ১ লাখ ২২ হাজার ৮শ ডলার নিয়ে তৃতীয় স্থানে, বাহরাইন ৯৮ হাজার ডলার নিয়ে চতুর্থ স্থানে এবং সৌদি আরব ৮৪ হাজার ৪শ ডলার নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। এছাড়া ষষ্ঠ স্থানে ওমান, সপ্তম স্থানে জর্ডান, অষ্টম স্থানে মিশর, নবম স্থানে তিউনিসিয়া এবং ইরাক রয়েছে দশম স্থানে।

মানিলিংক ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কুয়েত মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম ধনী দেশ কারণ এর প্রচুর পরিমাণে অপরিশোধিত তেলের সরবরাহ রয়েছে। এর মজুদ তেল কৌশলগতভাবে বিশ্বের ধনী দেশের তালিকায় একটি উন্নত অবস্থান সুরক্ষিত করার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

কুয়েত ভৌগলিকভাবে একটি ছোট দেশ, তবুও এটি প্রায় ১০২ বিলিয়ন ব্যারেল তেলের রিজার্ভের মাধ্যমে একটি সমৃদ্ধ অর্থনীতি দেশের পরিণত হয়েছে যা মোট বৈশ্বিক রিজার্ভের ছয় শতাংশ। এই তেলের আয় দেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রায় অর্ধেক এবং সরকারি আয়ের ৯০ শতাংশ অবদান রাখে। কুয়েত তার সম্পদ বাড়ানোর জন্য প্রতিদিন তেল উৎপাদন চার মিলিয়ন ব্যারেলে বাড়ানোর পরিকল্পনা করেছে।

কুয়েতে বর্তমানে আড়াই লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি অবস্থান করছেন। এদের একটা বিশাল অংশ তেল উৎপাদন কাজে নিয়োজিত। যাদের শ্রমেই কুয়েত আজ একটি শীর্ষ ধনী রাষ্ট্র।

টিটিএন

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।