শেষবারের মতো সানির জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৫ এএম, ১৭ জুলাই ২০১৭
ফাইল ছবি

যৌতুকের জন্য মারধরের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিনের মেয়াদ শেষবারের মতো বৃদ্ধি করেছেন আদালত।

সোমবার সানির জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তার আইনজীবী ফের জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করেন। তবে সানির স্ত্রী নাসরিন সুলতানা তার জামিন বাতিলের আবেদন করেন। এ সময় নাসরিন সুলতানা বলেন, বার বার সমঝোতার জন্য সময় নিয়েও সানি সমঝোতা করছেন না।

অন্যদিকে, সানির আইনজীবী বলেন, আমরা শেষবারের মতো সময় চাচ্ছি। এবার সমঝোতা করে আসব। উভয়পক্ষের শুনানি শেষ ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক জাহিদুল কবির আবেদন মঞ্জুর করে শেষবারের মতো আগামী ৭ আগস্ট পর্যন্ত সানির জামিন বৃদ্ধি করেন।

এরআগে গত ৬ জুলাই ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা ক্রিকেটার সানির জামিনের মেয়াদ ১৭ জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি করেন। এ সময় বিচারক বলেন, এবার সমঝোতা না করে আসলে জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠিয়ে দেব। কারাগারে ১০ থেকে ১২ দিন থাকলে সব কিছুই ঠিক হয়ে যাবে।

গত ৯ মার্চ ‘সমঝোতা করবেন’ এ শর্তে সানিকে এক মাসের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন আদালত। এরপরও চারটি ধার্য তারিখেও নাসরিনের সঙ্গে কোনো প্রকার সমঝোতা করতে পারেননি সানি।

প্রসঙ্গত, গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৪নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুকের জন্য মারধরের অভিযোগে ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও তার মা নারগিস আক্তারের বিরুদ্ধে তৃতীয় মামলা করেন তার স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা। 

আদালত পরবর্তীতে মামলাটি এজাহার হিসেবে নেওয়ার জন্য মোহাম্মদপুর থানাকে নির্দেশ দেন। ৮ ফেব্রুয়ারি সানি ও তার মা নারগিস আক্তারের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি এজাহার হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। বর্তমানে মামলাটি তদন্তাধীন। নাসরিন সুলতানার দায়ের করা মামলায় ২২ জানুয়ারি গ্রেফতার হন সানি। ৫৩ দিন কারাগারে থাকার পর ১৫ মার্চ জামিনে মুক্তি পান তিনি।

 

জেএ/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]