রাশেদ চিশতীর জামিন হাইকোর্টে স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১০ পিএম, ২০ মে ২০২০

১৫৯ কোটি টাকা আত্মসাত করে তা পাচারের অভিযোগে করা মামলায় ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের (বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক) উদ্যোক্তা পরিচালক ও অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতীর ছেলে রাশেদুল হক চিশতীর জামিন ২৮ মে পরর্যন্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

এই মামলায় মঙ্গলবার (১৯ মে) ঢাকার একটি আদালত তাকে জামিন দিয়েছিলেন। ওই জামিন আদেশের বিরুদ্ধে দুদকের আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার (২০ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিমের ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ ২৮ মে পর্যন্ত জামিন স্থগিত করেছেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষের শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ ও একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

পরে খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বলেন, গত দুইদিনে মোট চার মামলায় রাশেদুল হক চিশতী ঢাকার আদালত থেকে জামিন পেয়েছিলেন। এরমধ্যে গতকাল ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ তাকে ১৫৯ কোটি টাকা অর্থ পাচারের মামলায় জামিন পান। এর বিরুদ্ধে দুদক হাইকোর্ট বিভাগে আবেদন করে। শুনানি শেষে আদালত ২৮ মে পর্যন্ত জামিন স্থগিত করেন। এছাড়া ওইদিন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর জামিন আদেশ দাখিলের জন্য দুদককে নির্দেশ দেন।

তিনি আরও জানান, ২০১৮ সালের ১০ এপ্রিল গুলশান থানায় মো. মাহবুবুল হক চিশতী ওরফে বাবুল চিশতী, স্ত্রী রুজী চিশতী, ছেলে রাশেদুল হক চিশতী, ব্যাংকটির ফার্স্ট প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মাসুদুর রহমান খান, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জিয়া উদ্দিন আহমেদ এবং ব্যাংকটির গুলশান করপোরেট শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ১৫৯ কোটি টাকা অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে অর্থ পাচার প্রতিরোধ আইনের ৪ ধারায় মামলা করে দুদক।

এফএইচ/এনএফ/এমকেএইচ