সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতার জামিন নিয়ে হাইকোর্টের রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪৪ পিএম, ০৯ মার্চ ২০২১

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার আসামি মহসিন তালুকদারকে জামিন দেননি হাইকোর্ট। তবে তাকে কেন জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ।

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ রুল জারি করে আদেশ দেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ। আদালতে আসামি পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আব্দুল হালিম কাফি ও মো. জাহাঙ্গীর হোসেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ বলেন, আদালত তাকে জামিন না দিয়ে জামিন প্রশ্নে চার সপ্তাহের রুল জারি করেন।

গত বছরের ১৪ নভেম্বর রাত ১২টা ৭ মিনিটে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে আসেন মহসিন তালুকদার। ফেসবুকে লাইভ ভিডিওতে তলোয়ার উঁচিয়ে সাকিবকে হত্যার হুমকি দেন। এরপর ১৭ নভেম্বর সুনামগঞ্জ থেকে মহসিন তালুকদারকে র্যাব গ্রেফতার করে। এ নিয়ে ১৬ নভেম্বর রাতে উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহবুব মোর্শেদ বাদী হয়ে মহসিনকে আসামি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

মহসিন সিলেট সদর উপজেলার টুকের বাজার ইউনিয়নের শাহপুর তালুকদারপাড়া গ্রামের আজাদ বক্স তালুকদারের ছেলে।

কালীপূজার একটি অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ গ্রহণ করে কলকাতায় যাওয়ায় বিক্ষুব্ধ হয়ে সাকিবকে কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেন ওই যুবক। সে সঙ্গে অকথ্য ভাষায় সাকিবকে গালাগালি করেন।

এরপর ভোর ৬টা ৪ মিনিটে আবারও লাইভে এসে আগের ভিডিওর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন এবং সাকিবকে জাতির উদ্দেশে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। পূজার নিমন্ত্রণে অংশ নেয়া এবং এক ভক্তের মোবাইল ভাঙার বিষয়ে পরে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন সাকিব।

এফএইচ/এমএইচআর/জিকেএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]