জিহ্বার সাদা-কালো দাগ দূর করুন ঘরোয়া উপায়ে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৭ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২১

অনেকের জিহ্বায় সাদা বা কালো দাগ পড়তে দেখা যায়। জিহ্বার রঙ বদলে যাওয়া শারীরিক বিভিন্ন রোগের লক্ষণ হতে পারে। এ ছাড়াও খাবার, মৃত কোষ, ব্যাকটেরিয়া, নিয়মিত জিহ্বা পরিষ্কার না করার কারণে এর স্তর পুরু হয়ে ময়লা জমাট বাঁধে।

চিকিৎসকদের মতে, একজন ব্যক্তির শারীরিক সুস্থতা অনেকটাই টের পাওয়া যায় তার জিহ্বার রঙ ও স্বাস্থ্য দেখে। গোলাপি জিহ্বার রঙ যখনই বদলায়; তখনই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

jagonews24

অনেক সময় জিহ্বায় খাবার জমে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয়। এর থেকে চামড়ায় ইনফেকশন হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। এ ইনফেকশনের কারণেই মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। এসব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কিছু ঘরোয়া উপায় অনুসরণ করতে পারেন।

জেনে নিন জিহ্বার সাদা বা কালো দাগ দূর করার কয়েকটি ঘরোয়া উপায়

>> এক কাপ পানিতে এক চা চামচ অ্যালোভেরার রস মিশিয়ে কয়েক মিনিট কুলি করে ধুয়ে ফেলুন। অ্যালোভেরায় রয়েছে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান। যা জিহ্বার সাদা বা কালো যেকোনো দাগ প্রতিরোধে কাজ করে।

>> হলুদের সাহায্যে দূর করা যায় জিহ্বার দাগ। এতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান। হলুদের গুঁড়ায় সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে নিন। পেস্টটি জিহ্বায় ঘঁষে হালকা গরম পানিতে ধুয়ে নিন। এটি জিহ্বার সাদা বা কালো স্তর দূর করবে এবং মুখের দুর্গন্ধ রোধ করবে।

>> লেবুর রস ও বেকিং সোডা একসঙ্গে মিশিয়ে জিহ্বায় লাগিয়ে টুথব্রাশ দিয়ে স্ক্রাব করুন। এটি জিহ্বার আঁঠালোভাব এবং দাগ দূর করবে।

jagonews24

>> আপেল সাইডার ভিনেগারে থাকা ভালো ব্যাকটেরিয়া জিহ্বার ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ও ফাঙ্গাস দূর করে। এতে আরও আছে অক্সিডেন্ট ও মিনারেলস, যা ত্বকের সব ধরনের কালো দাগ দূর করে। এজন্য এক গ্লাস গরম পানিতে ভিনেগার মিশিয়ে কুলি করে ধুয়ে ফেলুন।

>> রসুনে রয়েছে অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান, যা মুখের ব্যাকটেরিয়া দূর করে। এ জন্য মুখের সাদাভাব দূর করতে রসুনের কোয়া চিবুতে পারেন। এতে উপস্থিত অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদানসমূহ মুখের দুর্গন্ধ ও সংক্রমণ রোধ করবে।

হেলথলাইন/জেএমএস/এসইউ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]