ফ্রিজ ভালো রাখার সহজ কৌশল

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৭ পিএম, ২৮ জুন ২০২২

আমাদের আধুনিক জীবনে ফ্রিজ একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস। তবে ছোটখাটো কিছু ভুলের জন্যই ফ্রিজকে বেশি শক্তি ব্যয় করতে হয়। এতে ফ্রিজ নষ্ট হয়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, কোন কাজ করলে ফ্রিজের শক্তি কম ব্যয় হবে।

অকারণে দরজা না খোলা
ফ্রিজের দরজা যত কম খুলবেন; ততই ফ্রিজের ভেতরের অবস্থা ভালো থাকবে। কিছু রাখার জন্য বারবার ফ্রিজ না খুলে একসাথে গুছিয়ে সব একবারে রাখুন বা বের করুন।

পেছনের দেওয়ালে না রাখা
ফ্রিজের পেছনের দেওয়ালে কোনো কিছু ঠেসে রাখা ঠিক নয়। এটি ফ্রিজকে ক্ষতি করে। ফলে বেশি শক্তি ব্যয় করতে হয়। তা ছাড়া সবজি, মাছ, মাংসের জন্যও এটি ভালো নয়।

jagonews24

গরম খাবার রাখা যাবে না
সরাসরি গরম খাবার ফ্রিজে রাখা মোটেও ঠিক নয়। ওই খাবারকে ঠান্ডা করতে ফ্রিজকে বেশি শক্তি অপচয় করতে হয়। এ ছাড়াও গরম খাবার থেকে ফ্রিজে ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করতে পারে।

পরিমিত সময় দিন
তাড়াতাড়ি খাবার ঠান্ডা করার জন্য ফ্রিজের মাত্রা বাড়ানো বোকামি হবে। এতে ফ্রিজের খুব বেশি শক্তি ব্যয় করতে হয়। যাতে ফ্রিজ নষ্টও হতে পারে। তার চেয়ে জিনিস ঠান্ডা করার জন্য পরিমিত সময় দিতে হবে।

কুলিং কয়েল পরিষ্কার
ফ্রিজের পেছনের কুলিং কয়েলে প্রচুর ধুলা জমলে শক্তির প্রবাহ কমে যায়। তাই কুলিং কয়েল পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। একটু সাবধানে করবেন, যেন কয়েলের বাঁকা রেখাগুলোর কোনো ক্ষতি না হয়।

অতিরিক্ত বরফ না রাখা
ফ্রিজে বরফ বেশি রাখা যাবে না। অতিরিক্ত বরফ জমা হলে ফ্রিজের ঠান্ডা করার ক্ষমতা কমে যায়। তাই অতিরিক্ত বরফ জমা হলে দ্রুত সেগুলো সরিয়ে ফেলুন।

jagonews24

এনার্জি বাল্ব সংযুক্ত করা
ফ্রিজে একটি এনার্জি বাল্ব সংযুক্ত করতে পারেন। এটি ফ্রিজে থাকা বাল্ব থেকে বেশি তাপ উৎপন্ন করবে। ফলে ফ্রিজের কর্মক্ষমতা বাড়বে। এ ক্ষেত্রে লেড লাইট ভালো কাজ করে।

দেওয়াল থেকে দূরে রাখুন
ঘরের দেওয়ালের সাথে ফ্রিজকে ঠেসে রাখবেন না। দেওয়াল থেকে দূরে রাখার চেষ্টা করুন। এতে ফ্রিজ কম শক্তিতে বেশি ঠান্ডা করতে পারবে।

চুলা থেকে দূরে রাখুন
ফ্রিজকে অবশ্যই তাপ উৎপন্নকারী বস্তু থেকে দূরে রাখুন। বিশেষ করে চুলা, স্টোভ, ওয়াটার হিটার থেকে দূরে রাখা উচিত।

বাতাসের সংস্পর্শে রাখুন
এমন জায়গায় ফ্রিজ রাখবেন না, যেখানে ঠিকমত বাতাস পৌঁছায় না। এতে ফ্রিজকে খুব বেশি শক্তি ব্যয় করতে হবে। ফলে খুব দ্রুতই ফ্রিজ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

এসইউ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]