ইভিএম চায় না বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৭ এএম, ৩০ আগস্ট ২০১৭

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিপক্ষে মত দিয়েছে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি। রাজনৈতিক সমঝোতা করে নির্বাচনের সময় নির্বাচিত সরকারের অধীনে তদারকি সরকার গঠনের অভিনব প্রস্তাবও দেয় দলটি। এছাড়া ‘না’ ভোট চালুর পক্ষে মত দেন তারা।

বুধবার বেলা ১১টায় ইসিতে নিবন্ধিত দলের সঙ্গে বৈঠকে বসে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারসহ ইসির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃত্ব দেন দলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক।

এ সময় দলটি ভোটার সংখ্যা অনুপাতে সীমানা পুনঃনির্ধারণ, স্বরাষ্ট্রসহ গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় ইসির অধীনে রাখা, প্রবাসীদের ভোটাধিকার, অনলাইন মনোনয়নপত্র জমা চালু, সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত, গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণের তৎপরতা বন্ধ, তফসিল ঘোষণার পর সংসদ ভেঙে দেয়াসহ ২৩ দফা সুপারিশ করেছে।

বৈঠক শেষে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, আমরা ২৩টি প্রস্তাব উপস্থাপন করেছি।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সুশীল সমাজ, গণমাধ্যম, রাজনৈতিক দলসহ অন্যান্য প্রনিতিধিদের সঙ্গে সংলাপ শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

উল্লেখ্য, ৩১ জুলাই সুশীল সমাজের মাধ্যমে এ সংলাপ শুরু হয়। এর মধ্যে সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল, খেলাফত মজলিশ এ তিন দলের সঙ্গে বৈঠক করে ইসি। তারও আগে সুশীল সমাজ ও সাংবাদিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক হয়।

৩১ জুলাই সুশীল সমাজ, ১৬ ও ১৭ আগস্ট গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে ইসি। এরপর ২৪ আগস্ট থেকে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শুরু হয়।

এইচএস/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]