‘স্বামী-সন্তান হারালেও আন্দোলন ছাড়বো না’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৮

স্বামী-সন্তান ছেড়ে আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন সুনামগঞ্জের সুচিত্রা চৌধুরী। টানা ১১ দিন ধরে ঘরের বাহিরে থাকায় এখন সংসার ভাঙার উপক্রম। তবুও আন্দোলন ছেড়ে ফিরে যেতে রাজি নন তিনি।

সুনামগঞ্জের আলহাজ সমিরুন নূর উচ্চ বিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞানের শিক্ষক সুচিত্রা চৌধুরী। ২০০৪ সাল থেকে শিক্ষকতা করছেন। জীব বিজ্ঞানে অনার্স-মার্স্টাস ও বিএড করে শিক্ষাকতা শুরু করেছেন।

সুচিত্রা চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, পরিবারে সাড়ে তিন বছরের একটি মেয়ে, স্বামী ও শশুর-শাশুড়ি রয়েছে। সবার বাধা উপেক্ষা করে গত ১১ দিন আগে ঢাকায় জাতীয়করণের আন্দোলনে যোগ দিয়েছি।

এ শিক্ষক আরও বলেন, নিজের মর্যাদা পেতে স্বামী-সন্তান ছেড়ে জাতীয়করণের আন্দোলনে যোগ দিয়েছি। আমার মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে আছে। তাই স্বামী বারবার বাড়ি ফিরে যেতে বলেছে। আমি তাকে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। কেউ আমার কথা শুনতে চাচ্ছে না। এ কারণে আমার স্বামী আমার সঙ্গে কথা বলছে না। ফোন দিলে কেটে দিচ্ছে। এসব বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

mpo

তিনি আরও বলেন, দু’দিন পর আমার ছোট ভাইয়ের বিয়ে। আমার মা-বাবা ফোন করে বাড়ি যাওয়ার অনুরোধ করছেন। এ কারণে আমি কারও ফোনও রিসিভ করছি না।

তিনি আরও বলেন, সব যোগ্যতা থাকার পরও বেসরকারি শিক্ষক বলে অবজ্ঞা করা হয়। সরকারি শিক্ষকদের সঙ্গে রয়েছে বিস্তর বৈষম্য। বেসরকারি শিক্ষকরা শিক্ষার আলো ছড়িয়ে মানুষ গড়ার কাজে নিয়োজিত থাকলেও বেসরকারি বলে অমর্যাদা করা হচ্ছে। তাই স্বামী-সংসার সব হারালেও মর্যাদা না নিয়ে বাড়ি ফিরবো না।

উল্লেখ্য, গত ১১ দিন ধরে জাতীয়করণের দাবিতে এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সমানে আন্দোলন করছেন। ১ জানুয়ারি থেকে তারা শুরু করেন আমরণ অনশন যা এখানো অব্যাহত রয়েছে।

এমএইচএম/এএইচ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :