ভোটাধিকার নিশ্চিতে যুব সমাজের ৬ দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২১ পিএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৮

ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে আগামী সংসদ নির্বাচনে সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে ৬ দফা দাবি করেছে দেশের যুব সমাজ। সোমবার রাজধানীর সিরডাপে ‘যুব সম্মেলন ২০১৮-বাংলাদেশ ও এজেন্ডা ২০৩০ : তারুণ্যের প্রত্যাশা’ পরবর্তী মিডিয়া ব্রিফিংয়ে যুব সমাজের পক্ষ থেকে এ দাবি তুলে ধরেন এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক প্ল্যাটফর্মের আহ্বায়ক ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য।

তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে মোট ভোটারের এক-তৃতীয়াংশ (প্রায় সাড়ে তিন কোটি) ভোটার যুব সমাজ। এর মধ্যে প্রায় দুই কোটি নতুন ভোটার। আগামী সংসদ নির্বাচনে যুব সমাজ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এজন্য যুব সমাজের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে হবে। এ সময় তিনি যুবসমাজের পক্ষে ৬টি দাবি তুলে ধরেন।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দলগুলোকে যুব সমাজের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে এবং তাদের মতামত বিবেচনায় নিতে হবে; যুব সমাজের দাবি নির্বাচনী ইশতেহারে রাখতে হবে; যুব সমাজের প্রাধিকারগুলো প্রচারণায় আনতে হবে; নাগরিক ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে যুবসমাজ ভোট পর্যবেক্ষণ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করবে; নির্বাচনের পর সরকারের কর্মপরিকল্পনায় যুবসমাজের প্রত্যাশা ও প্রাধিকারের প্রতিফলন থাকতে হবে এবং নতুন সরকারের নীতিতে যুব উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে হবে।

ড. দেবপ্রিয় বলেন, দেশের রাজনৈতিক দলগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যুবসমাজকে অপব্যবহার করছে। এটি রোধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। এক্ষেত্রে সব রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট ঘোষণা প্রদান করতে হবে।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, সিভিল সোসাইটির সঙ্গে সরকার সংলাপ করবে কিনা আমাদের জানা নেই। এখন যে পরিস্থিতি, এ সময়ে সরকারের সঙ্গে আমাদের সংলাপ করার কোনো আগ্রহ নেই। তবে নির্বাচন নিয়ে দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আমরা আলোচনা করতে চাই। এটি হবে তাদের নির্বাচনী ইশতেহার নিয়ে আলোচনা।

মিডিয়া ব্রিফিংয়ে এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক প্ল্যাটফর্মের উগ্রবাদ ও মাদকাসক্তি প্রতিরোধের সভাপতি শাহীন আনাম, গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) সম্মানিত ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান, ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সাবেক সভাপতি আসিফ ইব্রাহিম, শিক্ষাবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরীসহ প্ল্যাটফর্মের মূল উদ্যোক্তা ও সহযোগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক প্ল্যাটফর্ম, বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে গত ১৪ অক্টোবর ‘যুব সম্মেলন ২০১৮-বাংলাদেশ ও এজেন্ডা ২০৩০ : তারুণ্যের প্রত্যাশা’ শীর্ষক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সারাদেশ থেকে প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষ অংশগ্রহণ করে। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশ ছিল যুবক, যাদের বয়স ১৮-৩৫ বছরের মধ্যে।

এসআই/এসআর/জেআইএম/এমএস