ঢাকা-১৮ : প্রচারণায় এগিয়ে নৌকা, মাঠে নেই ধানের শীষ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৩ পিএম, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাত্র তিন দিন বাকি থাকলেও ঢাকা-১৮ আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়া আর কোনো দলের প্রার্থীর প্রচার প্রচারণা নেই বললেই চলে।

গতবারের মতো এ আসনে এবারও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন। পুরো নির্বাচনী এলাকায় চলছে তার প্রচার-প্রচারণা। পোস্টারে ছেয়ে গেছে নির্বাচনী এলাকা।

এ আসনে সাহারা খাতুনের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়ছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন। তবে এখন পর্যন্ত তাকে প্রচারণায় দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এ আসনে আরও ৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন। তারা হলেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের (হাতপাখা) প্রার্থী আনোয়ার হোসেন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি-এনপিপির (আম) মাসুম বিল্লাহ, ইসলামী ফ্রন্টের (মোমবাতি) আবদুল মোমেন, ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ (টেলিভিশন) আতিকুর রহমান নাজিম, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল-পিডিপির (বাঘ) রফিকুল ইসলাম, মুসলিম লীগ-বিএমএলের (হাত পাঞ্জা) রেজাউল করিম স্বপন।

তবে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপনের পক্ষে এ আসনের কোথাও নির্বাচনী প্রচারণা দেখা যায়নি। আনোয়ার হোসেনসহ অন্য দলের প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণা হঠাৎ হঠাৎই দেখা যায়।

কাফি আহমেদ নামে উত্তরা ১৩ নম্বর সেক্টরের একজন বাসিন্দা জাগো নিউজকে বলেন, ‘সবখানেই নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাহারা খাতুনের প্রচারণা দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী শহীদ উদ্দিন মাহমুদের নামই শুধু শুনেছি। তাকে দেখার সুযোগ হয়নি। এ প্রার্থীর কোনো প্রচারণাও চোখে পড়েনি।’

dhaka-18-(2)

‘তবে কোনো এক শুক্রবার নামাজ পড়ে ফেরার পথে তার কয়েকটি লিফলেট রাস্তায় ছড়ানো দেখেছিলাম। ধারণা করেছিলাম, মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় এগুলো দ্রুত ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে,’ বলছিলেন কাফি।

‘নির্বাচনের মাত্র তিনদিন বাকি। এখন পর্যন্ত সাহারা খাতুন ছাড়া অন্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা না থাকায় প্রার্থীদের সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণাই তৈরি হয়নি ভোটারদের,’ বলছিলেন মো. হারুন নামে উত্তরা চার নম্বর সেক্টরের একজন চাকরিজীবী।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘ধানের শীষের প্রার্থীর নাম শুনেছি, কোনো প্রচারণা দেখিনি। তাই তাদের সম্পর্কে কোনো ধারণাও নেই আমাদের। সাহারা খাতুনকে চিনি। কারণ তিনি সাবেক এমপি এবং তার প্রচারণাও বেশি হচ্ছে।’

এ আসনের আব্দুল্লাহপুর, হাউস বিল্ডিং, আজমপুর, রাজলক্ষ্মী, জসীম উদদীন, কাউলা, খিলক্ষেত, নিকুঞ্জ-২, উত্তরখান, দক্ষিণখান এলাকার প্রায় প্রতিটি মোড়ে নৌকা প্রতীকের পোস্টার দেখা গেছে। বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে মাইক বাজিয়ে চলছে নৌকার প্রচারণাও।

আব্দুল্লাহপুর মোড়ে পান বিক্রেতা আহসান আলী জাগো নিউজকে বলেন, ‘এতদিনে ধানের শীষ প্রতীকের কোনো মিছিল, প্রচার-প্রচারণা কিছুই দেখিনি। তবে নৌকার প্রচার বেশ জমজমাট।’

প্রচারণা উপলক্ষে তার বিক্রিও বেড়েছে সে কথা বলতে ভুললেন না আহসান আলী।

জেপি/এনডিএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]