বদলি-পেনশনে ঘুষ, ব্যানবেইসে দুদকের অভিযান

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ০৭ এপ্রিল ২০১৯

শিক্ষকদের পেনশন প্রদানে ঘুষ, দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোতে (ব্যানবেইস) অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) এনফোর্সমেন্ট টিম।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ব্যানবেইসে শিক্ষকদের অবসরোত্তর বিল পাস করানোর জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হয়- এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জেসমিন আক্তারের নেতৃত্বে একটি টিম রোববার এ অভিযান চালায়। টিম সরেজমিন অভিযানে জানতে পারে, ২০১৭ সালের ৩০ জুনের পর দাখিলকৃত কোনো বিল পাস করা হয়নি।

এ বিষয়ে টিম অবসর সুবিধা বোর্ডের পরিচালক মো. খসরুল আলমের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, পেনশন বিল অনুমোদন কমিটির সাবেক সদস্য সচিব অধ্যক্ষ শরীফ আহমদ সাদী চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি অবসরে গেলে এখন পর্যন্ত কোনো সচিব নিয়োগ দেয়া হয়নি। এ কারণে কোনো বিলই প্রক্রিয়াকরণ হচ্ছে না।

দীর্ঘদিন ধরে কারও নিয়োগ না পাওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি সদুত্তর দিতে ব্যর্থ হন। দুদক টিম উপস্থিত শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের অভিযোগসমূহ লিপিবদ্ধ করেন।

শিক্ষকরা এ সময় অভিযোগ করেন, সাবেক সদস্য সচিবের ব্যক্তিগত সহকারী মারুফ অবসর ভাতাভোগীদের নিকট দ্রুত বিল পাস করিয়ে দেয়ার আশ্বাসে অনৈতিক সুবিধা গ্রহণ করেন।

দুদক টিম ওই অফিস সহকারীকে লিখিতভাবে সতর্ক করেন।

তিন জেলায় অভিযান

এদিকে দেশব্যাপী প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলিতে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগে তিন জেলায় একযোগে অভিযান চালায় দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম। দুদকের রাজশাহী, পাবনা ও সিলেট কার্যালয় হতে যথাক্রমে নওগাঁ, পাবনা ও সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে রোববার অভিযান পরিচালনা করা হয়।

দুদক টিম শিক্ষক বদলির ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়মের প্রাথমিক সত্যতা পায় এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জব্দ করে। সব কাগজপত্র যাচাই করে টিম কমিশনে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন পেশ করবে।

ছাদের গ্রেড বিম ভেঙে ছাত্রীর মৃত্যু, ঘটনাস্থলে দুদক

অপরদিকে, বরগুনার তালতলী উপজেলায় শ্রেণিকক্ষের ছাদের গ্রেড বিম ভেঙে ছাত্রীর মৃত্যুর অভিযোগ খতিয়ে দেখতে দুদকের একটি বিশেষ টিম ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে।

গতকাল শনিবার তালতলীর ৫নং ছোটবগী পি কে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুর সাড়ে ১২টায় ক্লাস চলাকালে তৃতীয় শ্রেণিকক্ষের গ্রেড বিম ভেঙে পড়ে কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত এবং একজন নিহত হয়। এ বিষয়ে অনিয়ম খতিয়ে দেখতে পটুয়াখালী জেলা দুদক কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. মুজ্জাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

টিম বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির প্রধান ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বিদ্যালয় নির্মাণ ও মেরামত সংক্রান্ত নথি সংগ্রহ করে। এ বিষয়ে কমিশনে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হবে।

এমইউ/এমএআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :