ঢাকার ৫০% বাসচালক ও হেলপারের চোখে সমস্যা

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩১ এএম, ১৩ মে ২০১৯

>> ২১ শতাংশ চালক-হেলপার দিনে ১২-১৬ ঘণ্টা কাজ করে
>> জীবনে কখনও চোখের ডাক্তারের কাছে যাননি ৭২ শতাংশ
>> চোখে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন ১২.৭ শতাংশের
>> ৭৬ শতাংশের চশমা বা নিয়মিত ওষুধের প্রয়োজন

রাজধানীতে চলাচল করা বাসের ৫০ শতাংশ চালক ও হেলপারের চোখে সমস্যা রয়েছে। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের সড়ক নিরাপত্তা কর্মসূচি ও জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) ঢাকা ওয়েস্টের যৌথ উদ্যোগে এক জরিপ প্রতিবেনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

সম্প্রতি সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে চক্ষু চিকিৎসা শিবির স্থাপন করে ওই জরিপ চালানো হয়। ওই শিবিরে চিকিৎসা নেয় ১২ শতাধিক চালক ও হেলপার।

রোববার বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সদর দফতরে এক আলোচনা সভায় এ জরিপের তথ্য তুলে ধরা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চক্ষুশিবিরে চিকিৎসা নেয়া চালক ও হেলপারদের মধ্যে ২১ শতাংশই দৈনিক ১২ থেকে ১৬ ঘণ্টা কাজ করেন। তাদের মধ্যে চোখের ছানির অস্ত্রোপচার করা প্রয়োজন ১২ শতাংশের।

bus

জরিপে অংশ নেয় ৫০ শতাংশ চালক, চালকের সহকারী ৪৯ শতাংশ ও বাকিরা চালক ও তাদের সহকারী। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ২৯ শতাংশের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, ২৭ শতাংশের বয়স ৪০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ও ১৯ শতাংশের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে।

যাদের দৃষ্টিশক্তিতে সমস্যা রয়েছে তাদের মধ্যে ৭৬ শতাংশের চশমা বা নিয়মিত ওষুধের প্রয়োজন রয়েছে। চোখে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন ১২ দশমিক ৭ শতাংশের’,- উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, চালক-হেলপারদের মধ্যে ৯৪ শতাংশের ধারণা যে, তাদের দৃষ্টিশক্তিতে সমস্যা আছে। অথচ জীবনে কখনও চোখের ডাক্তারের কাছে যাননি ৭২ শতাংশ চালক ও হেলপার।

জেডএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :