ভোক্তা অধিদফতরের অভিযানের খবর পেয়ে পালালেন কারখানার কর্মীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪৭ পিএম, ১৬ মে ২০১৯

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়েছেন রাজধানীর আরাফাত ও আনন্দ বেকারি কারখানার কর্মীরা। পরে তালা ভেঙে কারখানা দুটিতে অভিযান চালানো হয়। কারখানা দুটির নোংরা ও স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশের কারণে দেড় লাখ টাকা করে মোট তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর রমজান উপলক্ষে বিশেষ অভিযানের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করে। ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (উপসচিব) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মন্ডল।

মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার জানান, আজকে রাজধানীর মিরপুর পাইকপাড়া এলাকার অভিযানে যাই। আমাদের যাওয়ার খবর পেয়ে আনন্দ বেকারি ও আরাফাত বেকারির কর্মীরা কারখানায় তালা লাগিয়ে পালিয়ে যান। এ সময় তালা ভেঙে কারখানায় প্রবেশ করে দেখা যায়, দুটি বেকারির পরিবেশ খুব বাজে অবস্থা। নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ। যত্রতত্র ময়লা ও দুর্গন্ধ। কারখানার ভেতরে তেলাপোকা ঘুরছে। এসব অবস্থা দেখে প্রতিষ্ঠান দুটিকে দেড় করে মোট তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া আরাফাত বেকারিকে সাময়িক বন্ধ করে দেয়া হয়।

একই দিন মুসলিম সুইটসকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন না মানায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে অধিদফতর।

অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান-১১ (এপিবিএন) এর সদস্যরা।

এসআই/এসআর/পিআর