ফল মেলায় শতাধিক ফলের সমাহার

ফজলুল হক শাওন
ফজলুল হক শাওন ফজলুল হক শাওন , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩০ পিএম, ১৭ জুন ২০১৯

রাজধানীর ফল মেলায় আম, জাম, কাঁঠাল লিচুসহ শতাধিক রসালো ফল প্রদর্শিত হচ্ছে। সরকারি এবং বেসরকারি ৬৪টি স্টলে সাজানো হয়েছে এবারের মেলা। ৬০ থেকে ৮০ টাকা পর্যন্ত হাড়িভাঙ্গা, চোষা, ল্যাংড়া ও হিমসাগর আম বিক্রি হচ্ছে। ব্যানানা ম্যাংগো বিক্রি হচ্ছে ১৮০-২৩০ টাকা কেজি দরে।

‘পরিকল্পিত ফল চাষ জোগাবে পুষ্টিসম্মত খাবার’ প্রতিপাদ্যে রোববার (১৬ জুন) থেকে ৩০ জুন (রোববার) পর্যন্ত দেশব্যাপী শুরু হয়েছে ফলদ বৃক্ষ রোপণ অভিযান এবং ১৬ থেকে ১৮ জুন তিন দিনব্যাপী রাজধানীতে আয়োজন করা হয়েছে ফল মেলার। রাজধানীর ফার্মগেটের মিলকী অডিটোরিয়াম চত্বরে চলছে এ ফল মেলা।

সোমবার (১৭ জুন) ফল মেলায় গিয়ে দেখা যায়, নানা রকম দেশি-বিদেশি ফলের সমাহার। মেলায় সরকারি-বেসরকারি ৬৪টি প্রতিষ্ঠান ফলের পসরা সাজিয়ে বসেছে। এসব স্টলে আম, কাঁঠাল, জাম, লিচু, আশফল, ফলসা, জামরুল, আতা, কলা, পেঁপে, তরমুজ, গাব, গোলাপজাম, আনারস, বেত ফল, তৈকর, ননী ফল, পিচ ফল, পাসিমন, রাম্বুটান, শান তোল, হামজাম, আলু বোখরা, কাজু বাদাম, আমরুল, স্টার আপেল, মুড়মুড়ি, ব্রেড ফ্রুট, জিলাপি ফল, চুকুর, ডুমুর, গোল ফল, গুড গুইট্টা, করমচা, ডেউয়া, পানি জাম, বুটি জাম, ক্ষুদি জাম, নলি জাম, কাউ ফল, চিনার, তিম তোরা, লুকলুকি, পেয়ারা, মাখনা, প্যাশন ফল, বিলম্বি, অর বরই, আমলকি, বাতাবি লেবু, ডালিম, মালটা, শরিফা, বিলাতি আমড়া, জলপাই ফল প্রদর্শিত করা হচ্ছে।

অন্যান্য ফলের মধ্যে রয়েছে- চালতা, বিলাতি গাব, নারিকেল, তাল, সুপারি, জাব টিকা, পদ্মফুল, কামরাঙ্গা, কমলালেবু, পদ্ম ফল, সাতকরা, আঙ্গুর, ড্রাগন ফ্রুট, কুমকই, বকুল ফল, পানি ফল, সিঙ্গারা ফল, কদবেল, তেঁতুল, পিরালু, কুল, বড়ই, শিয়াল কুল, স্টবেরি, ডেফল, মনফল, বেল, বহেরা, হরিতকি, লুটকি, জংলি বাদাম, মধুমালতি, টক আতা, জামান ফল, ডুমুর, ভোলাটুকি, রক্তগোলা, নাশপাতি, ওড়াফল, মারকা, আদাজামির, সফেদা, বহনারী ও তুত ফলের মতো অসংখ্য ফল।

mela

বাসাবো মাদারটেক থেকে মেলায় এসেছেন জোহরা গাজী। তিনি এসেছেন নতুন কোনো ফলের জাতের সন্ধানে। তিনি তার বাসায় ছাদবাগান গড়ে তুলেছেন। ফলমূলে রোগ হলে কী করবেন, কী ওষুধ দেবেন- এসব বিষয়ে পরামর্শ নিতে মেলায় এসেছেন তিনি। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের অভিজ্ঞরা এসব বিষয়ে তাকে পরামর্শও দিয়েছেন।

জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ‘আমি প্রতিব ছরই এ মেলায় এবং কৃষি মেলায় যাই। এখান থেকে ১৮০ টাকা কেজি দরে ব্যানানা ম্যাংগো কিনেছি। পছন্দের আরও কিছু ফল কিনবো।’

মেলায় অনেকেই স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছেলে-মেয়েদের নিয়ে এসেছেন। তেজকুনিপাড়া থেকে দুই ছেলে-মেয়ে সঙ্গে নিয়ে মেলায় এসেছেন আকবর শেখ। তিনি বলেন, এত ফল একসঙ্গে তারা (ছেলে-মেয়ে) কখনও দেখেনি। তাই ওদের ফল দেখাতে নিয়ে এসেছি। ফল মেলায় এসে ছেলে-মেয়ে খুব খুশি। অনেকগুলো নতুন ফলের নাম জানলো ওরা।

রাজশাহী ফল ভান্ডার মেলায় দোকান দিয়েছে বেশ কয়েক ধরনের আম নিয়ে। এ দোকানের কর্মচারী হাফিজ জাগো নিউজকে জানান, আজ বেশ ভালো বিক্রি হচ্ছে। আমরা প্রতিবারই মেলায় আসি। মেলায় বেচাকেনার চেয়ে পরিচিতিটা বেশি দরকার। কারণ, আমরা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ফল সরবরাহ করি। মেলা থেকে অনেকে ১০ কেজি, ২০ কেজি এমনকি ১ মণ পর্যন্ত আম কিনছেন।

এফএইচএস/আরএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :