বিদ্যুৎ বিলের জন্য টিআইএন বাধ্যতামূলক না করার আহ্বান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২১ পিএম, ২৩ জুন ২০১৯

বিদ্যুৎ বিল সংগ্রহের জন্য কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) বাধ্যতামূলক না করার আহ্বান জানিয়েছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। তিনি বলেন, বিদ্যুৎ বিলের জন্য টিআইএন বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব করা হয়েছে। পল্লী বিদ্যুতের সাড়ে ৩ কোটি গ্রাহকের মধ্যে ১ কোটি ২০ লাখ গ্রাহক ৪০ ইউনিটের কম বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন। এদের বিদ্যুতের বিলের জন্য যদি টিআইএন বাধ্যতামূলক করা হয়, এদের টিআইএন রাখা মানে করের ফাইল করতে হবে।

রোববার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমি অর্থমন্ত্রীকে বলবো সবার জন্য টিআইএন বাধ্যতামূলক না করে বিদ্যুৎ বিল কালেকশনের ব্যবস্থা করুন। যারা ৫০০ ইউনিটের ওপর বিদ্যুৎ ব্যবহার করে তাদের জন্য টিআইএন বাধ্যতামূলক করা যেতে পারে।’ এ ব্যাপারে অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু।

তিনি বলেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ গ্রাম বিদ্যুতায়ন এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে সব জেলায় গ্যাস পাইপলাইন দেওয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আমল জনগণকে পাঁচ বছর প্রতিদিন ১৬-১৭ ঘণ্টা অন্ধকারে রেখেছে। সেখান থেকে শেখ হাসিনার সরকার বিদ্যুৎখাতকে আজকের পর্যায়ে নিয়ে এসেছে। ৩ হাজার মেগাওয়াট থেকে বেড়ে আজ আমরা ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই। আজ সারাদেশ শতভাগ বিদ্যুতায়নের দিকে যাচ্ছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ গ্রাম বিদ্যুতায়ন হবে। সারাদেশের প্রত্যেকটি ইকোনমিক জোনে পাইপলাইনে গ্যাস যত দ্রুত সম্ভব পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি। সব জেলায় গ্যাসের পাইপলাইন করবো।

এইচএস/এনএফ/পিআর