সানি হত্যা : দুই আসামি কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৩:২৮ এএম, ২২ নভেম্বর ২০১৯

চট্টগ্রাম নগরের ওমরগণি এমইএস কলেজ এলাকায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের বিরোধের জেরে নিহত জাকির হোসেন সানি (১৭) হত্যা মামলায় দুই আসামিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওসমান গণির আদালতে এ দুই আসামি আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন- আনিসুর রহমান (৩০) ও মো. মামুন (৩০)। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী সাহাব উদ্দিন।

তিনি বলেন, জাকির হোসেন সানি হত্যা মামলায় এ দুই আসামি উচ্চ আদালত থেকে জামিনে ছিলেন। জামিনের মেয়াদ শেষে বৃহস্পতিবার তারা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন এবং বিচারকের কাছে জামিনের আবেদন করেন। বিজ্ঞবিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে দুজনকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার বাকি আসামিরা হলেন- সৌরভ ঘোষ (২০), সৈয়দ সাফাত কায়সার (১৯), রবিউল (১৯), তুষার (২২)।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ আগস্ট নগরীর জাকির হোসেন সড়কের এমইএস কলেজের সামনে ছুরিকাঘাতে খুন হন জাকির হোসেন সানি। পরদিন সানির বড় বোন মাহমুদা আক্তার বাদী হয়ে সাতজনের নাম উল্লেখ করে খুলশী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১৫ থেকে ২০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়।

ঘটনার পর পুলিশ জানায়, নগরের ওমরগণি এমইএস কলেজ এলাকায় দুই ছাত্রলীগ নেতার রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব থেকেই এ ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের আগে আসামি আনিস ও তার অনুসারীদের সঙ্গে সানিদের কথা কাটাকাটি এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছিল।

আনিস, আয়াতরা ওমর গনি এমইএস কলেজ ছাত্রসংসদের জিএস আরশাদুল আলম বাচ্চুর অনুসারী। নিহত জাকির হোসেন সানি ও তার সহযোগীরা ভিপি ওয়াসিম উদ্দিনের অনুসারী।

আবু আজাদ/বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]