রাজাকারের তালিকা পুনঃপরীক্ষায় যৌথ বৈঠকের সুপারিশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৫ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

বহুল সমালোচিত রাজাকারের তালিকা কোন প্রেক্ষিতে করা হয়েছিল তা জানতে চেয়েছে সংসদীয় কমিটি। এছাড়া এটি পুনঃপরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে মুক্তযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যৌথ বৈঠকের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে একই সঙ্গে রাজাকারের তালিকাসহ আল-বদর, আল-শামস, শান্তি কমিটি এবং স্বাধীনতাবিরোধী সব শ্রেণির তালিকা প্রেরণের জন্য জেলা প্রশাসকদের পত্র পাঠানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সংসদ সচিবালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন নির্মাণ ও বরাদ্দ নীতিমালা তৈরির খসড়া সংসদীয় কমিটিতে উপস্থাপন এবং মুক্তিযোদ্ধাদের নাম ব্যবহারকারী বিভিন্ন সংগঠন/সংস্থাগুলোকে পুনরায় যাচাই-বাছাই ব্যতীত নতুন করে নিবন্ধন না দেয়ার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) শূন্যপদে জরুরি ভিত্তিতে জনবল নিয়োগ এবং প্রতিষ্ঠিত ডেভেলপার কোম্পানির মাধ্যমে শেয়ারিং পদ্ধতিতে রাজধানী সুপার মার্কেটের বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি শাজাহান খানের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম (বীরউত্তম), কাজী ফিরোজ রশীদ এবং ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল অংশ নেন।

এইচএস/এএইচ/এমকেএইচ