ঢাকার ঐতিহ্য পুনরুদ্ধারে কার্যক্রম শুরু: তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৪ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, লালকুঠি, নর্থব্রুক হল আমাদের ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা। আমরা ঢাকার ঐতিহ্য পুনরুদ্ধার করব। সে লক্ষ্যে লালকুঠি পুনরুদ্ধারের মধ্য দিয়ে কার্যক্রম শুরু করেছি।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ৪৩নং ওয়ার্ডের লালকুঠি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে মেয়র বলেন, আপনারা দেখেছেন, একটি সুন্দর স্থাপত্যশৈলীতে লালকুঠি নির্মাণ করা হয়েছে। আমরা সেটাকে পুনরুদ্ধার করব। আমরা এখানে অনুষ্ঠান করব, সামনের নদী থেকে যাতে লালকুঠি দেখা যায় সে ব্যবস্থা করব। আমরা টার্মিনাল সরিয়ে ফেলার কথা বলব। এখানে অন্যান্য যে আগ্রাসী অবকাঠামোগুলো করা হয়েছে আমরা সেগুলো ভেঙে ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনব।

ইঞ্জিনচালিত রিকশা নিষিদ্ধ করার পরেও তা রাস্তায় চলছে, সে বিষয়ে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তাপস বলেন, আমাদের নিবন্ধন কার্যক্রম চলছে। আমরা ইঞ্জিন ও মোটরচালিত এসব বাহন নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছি। যদি তারা স্বপ্রণোদিত হয়ে এগুলো বন্ধ না করে, তাহলে আমরা সুনির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারণ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব। আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করব।

এর আগে নগরীর ৭ নম্বর ওয়ার্ডে করপোরেশনকে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত ২.৪২ একর জায়গা, রাস্তাঘাট ও বাজার, মানিকনগর মডেল হাই স্কুল পরিদর্শন করেন মেয়র। এছাড়া ৪৯ নং ওয়ার্ডে সিটি করপোরেশন আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, করপোরেশনের ১০ তলা পরিচ্ছন্ন ক্লিনার ভবন নির্মাণ কাজ ও গোলাপবাগ মাঠ পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শনকালে মানিকনগর মডেল হাই স্কুলের প্রাঙ্গণে একটি গাছের চারা রোপণ এবং গোলাপবাগ মাঠের চলমান উন্নয়ন কাজ শেষ করার তাগিদ দেন মেয়র তাপস।

পরিদর্শনকালে ডিএসসিসি মেয়রের সঙ্গে করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, প্রধান প্রকৌশলী রেজাউর রহমান, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক সহ কর্পোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

এএস/এমএসএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]