জনস্বাস্থ্য পরিচালকের বিজ্ঞপ্তির ব্যাখ্যা চেয়েছে সরকার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:১৬ পিএম, ২৯ অক্টোবর ২০২০

জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে অফিস চলাকালীন মোবাইল/ল্যান্ডফোন বন্ধ রাখা, মুসলিম ধর্মাবলম্বী পুরুষ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের টাখনুর ওপর ও নারীদের হিজাবসহ টাখনুর নিচে কাপড় পরিধান এবং পর্দা মেনে চলার জন্য নির্দেশনা প্রদান সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তির ব্যাপারে ইনস্টিটিউটের পরিচালকের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞপ্তটি কোন বিধি বলে এবং কোন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে জারি করা হয়েছে, তার স্পষ্টীকরণ ও ব্যাখ্যা আগামী তিনদিনের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের (পার-২২ অধিশাখা) উপসচিব শারমিন আক্তার জাহান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ ব্যাখ্যা চাওয়া হয়।

এর আগে বুধবার (২৮ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীন জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিম স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিটি জারি করা হয়

jagonews24

এতে বলা হয়, ‘এতদ্বারা ইনস্টিটিউটের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, অফিস চলাকালীন সময়ে মোবাইল/ল্যান্ডফোন বন্ধ রাখা এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের জন্য পুরুষ টাখনুর ওপর ও মহিলা হিজাবসহ টাখনুর নিচে কাপড় পরিধান করা আবশ্যক এবং পর্দা মানিয়া চলার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হলো।’

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান জানান, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক কর্তৃক জারিকৃত পোশাক-সংক্রান্ত বিষয়টি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি বিষয়টি জরুরিভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে মন্ত্রণালয়ের সচিব ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে তাৎক্ষণিকভাবে নির্দেশনা প্রদান করেন। আগামী ১ নভেম্বর এ বিষয়ে পরবর্তী আপডেট জানানো হবে।

এমইউ/এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]