দূরপাল্লার গাড়ি নেই, তবুও যানজট আমিনবাজার ব্রিজে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২১

রোববার (১ আগস্ট) থেকে গার্মেন্টসসহ রফতানিমুখী শিল্পকারখানা খুলে দেয়ার খবরে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছেন পোষাক শ্রমিকরা। জীবিকার তাগিদে উত্তরবঙ্গের শ্রমিকরা মাছ, সবজির ট্রাক, পিকআপ ভ্যানসহ যে যেভাবে পারছেন, আসছেন। আবার একইভাবে রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জসহ কয়েকটি জেলা থেকেও মানুষ আসছে।

তবে এসব যানে তারা ফেরিঘাট বা সাভার পর্যন্ত আসতে পারছেন। এরপর ব্যাটারিচালিত রিকশা ও অটোরিকশায় সাভার, হেমায়েতপুর হয়ে রাজধানীতে ঢোকার আগে আমিনবাজার ব্রিজে নামছেন।

যাত্রীরা বলছেন, তাদের ওঠানোর সময় গাবতলী পর্যন্ত আসার কথা বললেও পুলিশের চেকপোস্টের কারণে নামিয়ে দেয়া হচ্ছে আমিনবাজার ব্রিজেই। এরপর তিনচাকার বাহনগুলো সেখান থেকে ফিরে যাচ্ছে। এতে যাত্রী ওঠানামা করার কারণে দূরপাল্লার কোনো বাহন না থাকলেও আমিনবাজার ব্রিজের উপর যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

Amin-Bazar-3.jpg

ফলে আমিনবাজার ব্রিজ ও চেকপোস্ট পার হতে ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেলকে আধঘণ্টার মতো অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

মিরপুরের একটি গার্মেন্টসের শ্রমিক আল আমিন বলেন, ‘পাটুরিয়া থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশা দিয়ে হেমায়েতপুর আসছি। সেখান থেকে আমিনবাজার আসলাম আরেক রিকশায়। গাবতলী নিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও পুলিশের কারণে এখানে নামিয়ে দিয়েছে।’

Amin-Bazar-3.jpg

ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা বলছেন, তারা বেশ কয়েকটি অটোরিকশা আটক করেছেন। কিন্তু ব্রিজের মুখ থেকে পুলিশ সদস্যরা সরলেই আবার অটোরিকশা ব্রিজে আসছে।

দারুস সালাম রোডের ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা জাহিদ হাসান বলেন, ‘অবৈধ এই যানগুলো বিশৃঙ্খলা ও যানজট সৃষ্টি করছে। আমরা চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

এসএম/এমএইচআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]