মেয়র আতিকের পদত্যাগসহ ছয় দাবি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের পদত্যাগ ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের অবৈধ দখল, ক্ষতিপূরণ আদায় ও জানমালের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আব্দুল কাদেরের পরিবার।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের নাতনি নুরতাজ আরা ঐশী।

তিনি বলেন, মেয়র আতিক একজন আইন অমান্যকারী। দেশের প্রচলিত আইন-কানুনের তিনি তোয়াক্কা করেন না। তার আচরণ ও বডি ল্যাঙ্গুয়েজ মাফিয়া প্রধানের মতো। আমার বাবাকে তিনি রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করেন বলেও দাবি করেন ঐশী।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, আমাদের কলমিলতা বাজারের মীমাংসিত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়টি ইচ্ছাকৃতভাবে তিনি তার (মেয়র আতিক) দলবল নিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে আমাদের পাওনা চার হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ না দিয়ে বেআইনিভাবে অনেক দিন আটকে রেখেছেন। এছাড়াও প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প্রশাসনিক অনুমোদন নিয়ে আদালতের রায় মেনে ২০১৭ সালে ভূমি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ঢাকা জেলা প্রশাসককে আমাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রস্তাব পাঠান। কিন্তু বর্তমান মেয়র আতিক আমাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়টি একেবারেই অবজ্ঞা করে চলেছেন।

jagonews24

এসময় তাদের পরিবারকে নিঃশেষ করে দেওয়া, চিকিৎসা ও স্বাভাবিক জীবনযাপন নির্মম, নির্দয় ও অমানবিকভাবে ব্যাহত করছে বলে দাবি করেন তিনি। আতিকুল ইসলামকে ‘অমানবিক মেয়র’ উল্লেখ করে তার পদত্যাগ দাবি করেন ঐশী।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের অবৈধ দখলের বিষয়ে তিনি জানান, প্রতিনিয়ত আমাদের নির্মাণাধীন ফ্ল্যাট ও অন্যান্য সম্পদের লুটপাট করছে। তাছাড়া প্রতিবেশীদের প্রকল্পের নির্ধারিত ভূমি দখল করে নেওয়ার জন্যও উৎসাহিত করছে বলে দাবি করেন তিনি।

পরে ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প বাস্তবায়ন ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জানমাল ও সম্পদের সুরক্ষাসহ ছয়টি দাবি তুলে ধরেন ঐশী।

সংবাদ সম্মেলনের শেষে এক প্রশ্নের জবাবে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের ছেলে মো. আব্দুর রহিম বলেন, আমাদের প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ তারা দিচ্ছে না। এমনকি আমাদের বিভিন্ন সময় হুমকি-ধমকি দিচ্ছে তারা। আমরা এ বিষয়ে শিগগিরই আইনের আশ্রয় নেবো।

আরএসএম/এআরএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]