শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, পথচারীদের দুর্ভোগ

জাগো নিউজ টিম জাগো নিউজ টিম
প্রকাশিত: ১২:২৯ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২২
সংঘর্ষে দুর্ভোগে পড়েছেন পথচারীরা

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের অবরোধের পর ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ফের সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। একদিকে সংঘর্ষ, অন্যদিকে যানজটে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পথচারীরা। ঢাকা কলেজ সংলগ্ন সিটি কলেজের শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছেন।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে সরেজমিনে সায়েন্স ল্যাব, এলিফ্যান্ট রোড ও নীলক্ষেত ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

সিটি কলেজের এক শিক্ষার্থী বলেন, কলেজ থেকে বাসায় ফেরার জন্য দাঁড়িয়ে আছি। মতিঝিল যেতে হবে। কিন্তু যাওয়ার জন্য গাড়ি পাচ্ছি না। ভয় লাগছে, আজ কীভাবে বাসায় যাবো।

শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, পথচারীদের দুর্ভোগ

বাচ্চাদের জন্য কাপড় কিনতে নিউ মার্কেটে এসেছেন এক পথচারী। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, সকাল ১০টায় এদিকে এসেছিলাম। এখানকার অবস্থা সম্পর্কে জানতাম না। এসে বড় ঝামেলায় পড়ে গেছি। এখন বাসায় ফেরার জন্য গাড়িও নেই।

এর আগে মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল থেকে নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এরপর শুরু হয় সংঘর্ষ। সকাল সাড়ে ১০টার পর নীলক্ষেত মোড় থেকে সায়েন্সল্যাব পর্যন্ত এলাকায় থেমে থেমে সংঘর্ষ চলে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দও পাওয়া যায়।

শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, পথচারীদের দুর্ভোগ

সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বেলা ১১টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা কলেজের গেটে এবং ব্যবসায়ীরা চন্দ্রিমা সুপার মার্কেটের সামনের সড়কে অবস্থান নেয়।

ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি চলছে উভয়পক্ষের মধ্যে। উভয়পক্ষই ইটপাটকেল, লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান করছে। তাদের মধ্যে অনেকেই হেলমেট পড়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সোমবার রাতে নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দিনগত রাত ১২টার দিকে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষ চলে রাত আড়াইটা পর্যন্ত। মধ্যরাতে দুই পক্ষকে ওই এলাকা থেকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

টিটি/আরএসএম/এএএম/আল সাদী ভূঁইয়া/নাহিদ হাসান/এএএম/ইএ/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]