ডিএসসিসি থেকে চাকরিচ্যুত দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মী

নগরভবনে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার হুমকি একজনের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৩ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২২

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসির) চাকরিচ্যুত এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে গিয়ে এই হুমকি দেন তিনি।

ডিএসসিসির এই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর নাম মো. সুজন বেপারী। তিনি ডিএসসিসির অঞ্চল-৪ এর আওতাধীন ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা শাখায় কর্মরত ছিলেন। সোমবার (২৮ নভেম্বর) ‘কাজে অবহেলা, শৃঙ্খলাপরিপন্থি কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করা এবং হীন উদ্দেশ্য ডিএসসিসি সম্পর্কে নৈতিবাচক বিবৃতি প্রদান করায় করপোরেশনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের’ অভিযোগে তাকে চাকরিচ্যুত করে ডিএসসিসি।

একই অভিযোগে ডিএসসিসির অঞ্চল-৫ এর ৪৮ নম্বর ওয়ার্ডে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা শাখার পরিচ্ছন্নতাকর্মী মো. বাবুলকে চাকরিচ্যুত করা হয়। তারা দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মচারী ছিলেন।

তাদের মধ্যে সুজন বেপারী আজ সকালে তার ফেসবুকে লাইভে গিয়ে চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদ জানান এবং বুধবার (৩০ নভেম্বর) সকালে ডিএসসিসির নগরভবনে গিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার হুমকি দেন। তার এমন ঘোষণা মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। নানা মহলে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।

ডিএসসিসির সচিব দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানান, গত ২০ অক্টোবর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দক্ষিণ সিটিতে গণহারে চাকরিচ্যুতের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেন পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। তারা ডিএসসিসির মেয়র ফজলে নূর তাপসের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন। চাকরি পুনর্বহালসহ ছয়টি দাবি জানান।

এ ঘটনার সূত্রধরে সোমবার এই দুই কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করে অফিস আদেশ জারি করে ডিএসসিসি। এই অফিস আদেশে তাদের বিরুদ্ধে কাজে অবহেলা, বিভিন্ন সময় শৃঙ্খলাপরিপন্থি কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করা এবং হীন উদ্দেশ্য সিটি করপোরেশন সম্পর্কে নেতিবাচক বিবৃতি দেওয়ায় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের অভিযোগ আনা হয়।

ফেসবুক লাইভে আত্মহত্যার ঘোষণার বিষয়ে জানতে চাইলে কর্মচ্যুত পরিচ্ছন্নতাকর্মী সুজন বেপারী জাগো নিউজকে বলেন, তার মতো এমন অসংখ্য কর্মীকে বিনাকারণে চাকরিচ্যুত করেছে ডিএসসিসি। কেন এমন করা হচ্ছে তা জানতে চেয়ে কয়েকবার ডিএসসিসির সংশ্লিষ্টদের চিঠি দিয়েছি। কিন্তু তারা কোনো উত্তর দেয়নি।

তিনি বলেন, গণহারে চাকরিচ্যুতের কারণে আমার মতো হাজারো পরিবার মানবেতর জীবনযাপন করছে। এখন আমাদের না খেয়ে মরা ছাড়া কোনো উপায় দেখি না। অবিলম্বে আমরা চাকরি ফেরত চাই। অন্যথায় না খেয়ে মরার চেয়ে পরিবারসহ নগরভবনের সামনে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা করবো।

এমএমএ/বিএ/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।