দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় নজরদারি বাড়ানোর আহ্বান বামদের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:৩৩ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় নজরদারি বাড়ানোর আহ্বান বামদের

আটটি রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে জোটবদ্ধ সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার নেতারা মিয়ানমার সরকার ও সামরিক শক্তিকে অভিযুক্ত করে, গণহত্যা-বর্বরতার জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে অভিযোগ তোলার দাবি জানিয়েছেন। পাশাপাশি সার্বভৌমত্ব রক্ষাসহ দেশের জল ও স্থল ভাগের সম্পত্তি রক্ষায় নজরদারি বাড়ানোর দাবি জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার পল্টনস্থ মুক্তিভবনের প্রগতি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে নেতারা এ দাবি করেন। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল গত ১১ সেপ্টেম্বর টেকনাফ-উখিয়া এলাকায় রোহিঙ্গা শরণার্থী ও শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনোত্তর সংবাদ সম্মেলনে তারা মিয়ানমার থেকে সব শরণার্থীর নাম, ঠিকানা লিপিবদ্ধ করে নিরাপদ আশ্রয় দেয়ার পাশাপাশি রোহিঙ্গা সমাধানে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ানোর দাবিও জানান।

সরকারকে দৃঢ় অবস্থান নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো, গণহত্যা-বর্বরতা বন্ধসহ এসব মানুষকে মিয়ানমারের নাগরিক মর্যাদায় সে দেশে নিতে বাধ্য করতে ও মিয়ানমারে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজনৈতিক অঙ্গনে ভূমিকা নেয়া জরুরি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সিপিবি নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স। উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ ও জাহেদুল হক মিলু, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক।

এফএইচএস/এমআরএম/আইআই