দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে প্রশ্ন খোকনের

আমানউল্লাহ আমান
আমানউল্লাহ আমান , নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৩ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৫:১৩ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৭

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কমিটির নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। রোববার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে নগর আওয়ামী লীগের কোন্দল নিরসন বৈঠকে এমন কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ ও মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনকে নিয়ে আলোচনায় বসেন।

বৈঠকের শুরুতে মেয়র সাঈদ খোকন কেন্দ্রীয় নেতাদের উদ্দেশে বলেন, যোগ্য লোকদের কমিটিতে রাখা হয়নি। কিছু পকেটের লোককে পদে রাখা হয়েছে। মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের এই কমিটি দিয়ে আগামী নির্বাচন মোকাবেলা করা যাবে না। মেয়রের এমন বক্তব্যের প্রতি উত্তরে কেন্দ্রীয় নেতারা বলেন, কমিটি নিয়ে কোন অভিযোগ থাকলে নেত্রীকে অভিহিত করবেন।

গত বৃহস্পতিবার আজিমপুরে মহানগর আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানস্থলে ময়লা রাখার বিষয়ে মেয়র সাঈদ খোকনকে দায়ী করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এই অভিযোগ প্রসঙ্গে মেয়র বলেন, তদন্ত করে দেখেন, যদি সিটি করপোরেশনের কেউ জড়িত থাকে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সভায় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি বলেন, ওই দিনের ঘটনা দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে। এ ধরনের ঘটনা থেকে দলের সবাইকে বিরত থাকা উচিত।

বৈঠকে এক এগারো সেনা সমর্থিত সরকারের সময় তৎকালীন অবিভক্ত মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের রাজনৈতিক ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন শাহে আলম মুরাদ।

আগামীকাল ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত প্রথম মেয়র মোহাম্মদ হানিফের মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীদের অংশ গ্রহণ করার নির্দেশ দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। বৈঠক সম্পর্কে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, ‘এইগুলো আমাদের দলের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এইগুলো নিয়ে বাইরে কোন কথা বলতে চাই না।’

মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, ‘আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক ডেকেছিলেন, সেখানে গিয়েছিলাম। কথা হয়েছে।’

এইউএ/ওআর/আরএস

আপনার মতামত লিখুন :