সরকার আন্তরিক হলে গডফাদারদের গ্রেফতার করত : বাম মোর্চা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ২৩ মে ২০১৮

মাদক দমনের নামে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা আইনের শাসন, গণতন্ত্র এবং সংবিধানের পরিপন্থী বলে জানিয়েছে গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা।

বুধবার বাম মোর্চার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পরিচালনা পরিষদের সভায় এ কথা বলা হয়।

বাম মোর্চার নেতারা বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিজের হাতে আইন তুলে নিয়েছে। এভাবে চলতে পারে না। সরকার যদি আন্তরিকভাবে মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে চাইত, তবে মাদকের গডফাদারদের গ্রেফতার করত।

মোর্চার সমন্বয়কারী ও বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় কার্যপরিচালনা কমিটির সদস্য শুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তীসহ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকী, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক সভায় বক্তব্য রাখেন।

তারা বলেন, সমস্ত প্রচার মাধ্যমে মাদক ব্যবসার হোতাদের খবর প্রকাশিত হয়েছে, এমনকি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও এর সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে। কিন্তু সরকার এখন পর্যন্ত তাদের গ্রেফতার করেনি। ফলে সরকারের মাদকবিরোধী এ অভিযান বাস্তবে লোক দেখানো এবং চূড়ান্ত ফ্যাসিবাদী শাসনেরই প্রতিচ্ছবি। তারা অবিলম্বে এ অপতৎপরতা বন্ধের দাবি জানান।

এফএইচএস/এএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :