‘খালেদার চিকিৎসা নিয়ে অপরাজনীতি হচ্ছে’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৪ পিএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯
ফাইল ছবি

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কারাবন্দি ২০ দলীয় নেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে অপরাজনীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে নয়াপল্টনে লেবার পার্টির কার্যালয়ে ঢাকা দক্ষিণ লেবার পার্টি এক জরুরি সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেন, সরকার বেগম জিয়া ও তারেক রহমানের জনপ্রিয়তাকে ভয় পায়। জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করতেই মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলায় খালেদা জিয়াকে কারান্তরীন করা হয়েছে। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত বেগম জিয়াকে মানসম্মত চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত করে ক্রমশ মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, বেগম জিয়া তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী, জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের নেত্রী, সাবেক রাষ্ট্রপতি, মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ও জেড ফোর্স কমান্ডার এবং সাবেক সেনাপ্রধানের স্ত্রী। বেগম জিয়া সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত। তাই শারীরিক সুস্থতা নিশ্চিত করতে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে মুক্ত করা জরুরি।

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য সরকারকে বাধ্য করতে হবে উল্লেখ করে ডা. ইরান বলেন, সরকারই জনগণকে বিভ্রান্ত করতে বেগম জিয়াকে প্যারোল মুক্তির কথা বলছে। বেগম খালেদা জিয়া প্যারোল মুক্তিকে প্রত্যাখান করায় আবারও প্রমাণ করলেন তিনি নিজের জীবনের চেয়ে দেশ ও জনগণের স্বার্থে আপোষহীন। তিনি জনগণের জন্য রাজনীতি করছেন। বেগম জিয়ার মুক্তি মানেই গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের মুক্তি।

এ সময় নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন জোরদার করে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে ২০ দলীয় জোটকে সক্রিয় করার আহ্বান জানান তিনি।

সভায় ঢাকা দক্ষিণ লেবার পার্টির আহ্বায়ক আনোয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে লেবার পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মো. ফারুক রহমান, মো. মোসলেম উদ্দিন, এস এম ইউসুফ আলী, নগর দক্ষিণ সদস্য সচিব সালাউদ্দিন সরদার, সংগঠন সচিব আবু সাঈদ, ডেমরা থানা সভাপতি ইমরান হোসেন মুন্সি, মতিঝিল থানা সভাপতি আবুল কালাম, পল্টন থানা আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান, রমনা থানা আহ্বায়ক সোলায়মান ফকির ও ছাত্রমিশন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কেএইচ/আরএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :